বৃহস্পতিবার, ৩০ মে, ২০১৯

পতাকা ছেঁড়ার অভিযোগ, তৃণমূলে কর্মীকে জোর করে পতাকা তুলিয়ে জয়শ্রীরাম ধ্বনি দিয়ে মুচলেকা দিতে বাধ্য করল বিজেপি


নিজস্ব প্রতিনিধি,চন্দ্রকোনাঃ- তৃণমূল কর্মীকে দিয়ে জোরপূর্বক তোলানো হচ্ছে বিজেপির পতাকা, বলানো হচ্ছে জয় শ্রীরাম ধ্বনি, সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবি ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয়েছে  রাজনৈতিক তরজা। তৃণমূলের পক্ষ থেকে আইনী পদক্ষেপের হুশিয়ারীও দেওয়া হয়েছে ৷ অভিযোগ- স্বাকীর করে বিজেপির বক্তব্য-আমাদের পতাকা ছিঁড়ে পায়ে মাড়িয়েছিল বলেই এই কাজ করা হয়েছে ৷ তৃণমূলের করলে তারাও নিশ্চিত ছাড়তো না ৷

 জানায়ায় চন্দ্রকোনা ১ নম্বর ব্লকের লক্ষীপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সনপুর গ্রামের সক্রিয় তৃণমূল কর্মী সুভাষ পাল ৷ বুধবার বিকেল থেকে তাঁকে নিয়ে ভিডিও ভাইরাল হয় ৷তাতে দেখা যাচ্ছে - জোরপূর্বক বিজেপি কর্মীরা তাকে দিয়ে বিজেপির পতাকা তোলাচ্ছে, এবং প্রণাম করাচ্ছে। সেই সঙ্গে জয়শ্রীরাম ধ্বনি দিয়ে বিজেপির লেখা এক কিছু বক্তব্য তাকে পড়ে শোনাতে হচ্ছে ৷ সেই মুহুর্ত আবার ভিডিও রেকর্ড করছে কিছু বিজেপি কর্মীরাই ৷"  এই ছবি ভাইরাল হতেই  ঘটনাকে কেন্দ্র করে তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে চরম ক্ষোভ। তৃণমূল  বলতে শুরু করেছে, এখনো ক্ষমতায় আসেনি বিজেপি, আর এতেই বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা এলাকায় এই ধরনের চরম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে, এইভাবে বিজেপি তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের দিয়ে জোরপূর্বক বিজেপির পতাকা লাগানো করাচ্ছে এলাকায়,এমনকি বেশ কিছু এলাকায় বাড়ি ভাঙচুর ও মারধোর করছে৷
চন্দ্রকোনা ১ নম্বর ব্লকের তৃণমূল ব্লক সভাপতি চিত্ত পাল বলেন" ব্লকের সর্বত্রই বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীর এই ধরনের সন্ত্রাস চালাচ্ছে, নোংরা রাজনীতি করছে, বিজেপি কর্মীরা সিপিএম থেকে এসে বিজেপিতে যোগ দিয়ে এই ভাবেই সন্ত্রাস চালাচ্ছে।আমরা পুলিশ প্রশাসনকে বলেছি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।    বিজেপির ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার নেতা তরুণ কুমার দে  ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন" ওই তৃণমূল কর্মী নির্বাচনের রেজাল্ট বেরোনোর পর থেকেই এলাকায় বিজেপির পতাকা ছিঁড়ে পা দিয়ে মাড়িয়ে এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছিল,  আর এই ঘটনা আমাদের কর্মী-সমর্থকদের নজরে আসতে তারা ওই তৃণমূল কর্মীকে মারধর না করে তার শাস্তি স্বরূপ তাকে পুনরায় আমাদের দলীয়  পতাকা গুলি তোতলানো করিয়েছে এতে অন্যায়ের কিছু নেই, একজন রাজনৈতিক দলের কর্মী হয়ে আর এক রাজনৈতিক দলের পতাকা কি ভাবে খুলে ফেলে, শুধু তৃণমূল পারে এই  নোংরা রাজনীতি করতে।তাই পাল্টা ব্যাবস্থা নেওয়া হয়েছে ৷        তবে এই ঘটনায় আইনী ব্যাবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতি ৷ যদিও বিকাল পর্যন্ত তেমন কিছু হয় নি ৷

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only