রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯

ভোট দিলেন পাভলভের ৫০ জন সুস্থ আবাসিক


পিয়ালী দে বিশ্বাস
তাঁরা মানসিক রোগী ছিলেন। এই অপরাধে সুস্থ হয়ে যাওয়ার পরেও বাড়ির লোকেরা ফিরিয়ে নিয়ে যাননি। অথচ ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে যখন আপাত সুস্থ রাও মেজাজ হারাচ্ছেন– সেই সময় অনেক বেশি ধৈর্যের সঙ্গে স্থির বিশ্বাস নিয়ে ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে শেষ পর্যন্ত ভোট দিলেন পাভলভের ৫০ সুস্থ আবাসিক।  
এন্টালির বামনপাড়া বুথ। রবিবার ওই বুথে ইভিএম মেশিন বিকল হয়ে সকাল ১০টা নাগাদ ভোটগ্রহণ বন্ধ হয়ে যায়। প্রায় ৪৫ মিনিট বন্ধ ছিল ভোটগ্রহণ। খুব স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় ভ্যাপসা গরমে দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে থাকার জন্য ভোট দিতে আসা সাধারণ মানুষের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিচ্ছিল। সিআরপিএফ জাওয়ানরা নানারকমভাবে বুঝিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছেন। ততক্ষণে লাইনে দাঁড়ানো উত্তেজিত ভোটারদের কেউ কেউ বুথের পোলিং অফিসারদের উদ্দেশ্যে নানান কটূক্তি ছুড়ে দেওয়া শুরু করেছেন। মহিলাদের মধ্যে অনেকেই বাড়িতে কী কী কাজ রেখে এসেছেন– তার খতিয়ান দিয়ে নিজেদের সমস্যার কথা একে-অন্যকে জানাচ্ছেন। কিন্তু এমন পরিস্থিতিতেও ওঁরা শান্ত। ৪০ ডিগ্রি গরম– রোদে লম্বা লাইনে দাঁড়িয়েও ওঁরা আপাত সুস্থ মানুষদের মতো বিচলিত নন।

ওঁরা কারা? ওঁরা হলেন পাভলভের ৫০ জন আবাসিক। যাঁরা এতদিন মনোরোগী ছিলেন। সুস্থ হওয়ার পরেও অসহি¡ুŒতা দেখাবে এই ভয়েû বাড়ির লোকেরা এঁদের ফিরিয়ে নিয়ে যায়নি। তাই সুস্থ হওয়ার পরেও এঁদের প্রত্যেকেরই ঠিকানা ১৮ নম্বর গোবরা রোড– অর্থাৎ পাভলভ হাসপাতাল। এনাদের মধ্যে কেউ বা সদ্য অষ্টাদশী– কেউ বা ষাটের কোঠায় দাঁড়িয়ে। সাবলম্বী হয়ে কেউ কাজ করেন হাসপাতালের ক্যান্টিনে– কেউ বা জামাকাপড়ের সাফাইখানা ‘ধোবি ঘরে’। দীর্ঘদিন ধরেই পাভলভের মানসিক রোগীদের নিয়ে কাজ করছেন বিশিষ্ট মনোবিদ রbাবলী রায়। এ দিন তিনি দুঃখ করে বলেন– ‘সমাজের চোখে অস্বাভাবিক এই মানুষগুলোই পরিস্থিতির চাপে পড়েও এ দিন স্বাভাবিক মানুষদের চেয়ে বেশি ধৈর্য দেখিয়েছেন। অথচ এই মানুষদেরই ‘ভায়োলেন’ তকমা নিয়ে বাঁচতে হয়।
প্রসঙ্গত– ভোট দেওয়াটা মানসিকভাবে সুস্থ মানুষদের অধিকারের পর্যায়ে পড়ে। তাই এই বঞ্চিতরা যেন নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে– তা নিশ্চিত করতে ‘অঞ্জলি’ নামে একটি সংস্থা ২০১৮-তে নির্বাচন কমিশনের দফতরে যোগাযোগ করে। নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে প্রতিনিধিরা এঁদের সঙ্গে কথা বলে ও সুস্থতার শংসাপত্র দেখে এ বছর মার্চে পাভলভের এই ৫০ জন আবাসিকের হাতে ভোটার আই কার্ড তুলে দিয়েছিলেন। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only