শনিবার, ২৫ মে, ২০১৯

বিকেলে কালিঘাটে বৈঠক মমতার, থাকছেন জেলা পর্যবেক্ষক, জয়ী-পরাজিত প্রার্থী

 লোকসভা নির্বাচনের  ফল পর্যালোচনায় আজ শনিবার কালিঘাটে বৈঠকে বসছেন  মমতা। জয়ী ও পরাজিত সমস্ত প্রার্থী– জেলা সভাপতি– জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত পর্যবেক্ষক– ও বর্ষীয়ান নেতা নেত্রীদের এই বৈঠকে ডেকেছেন মমতা। ফল পর্যালোচনার পাশাপাশি দলকে তিনি চাঙ্গা করারও বার্তা দেবেন বলে খবর।
এবার নরেন্দ্র মোদিকে দিল্লির মসনদ থেকে সরানোর চ্যালেঞ্জ ছিল মমতার কাছে। তাই এই রাজ্যের ৪২ টি আসনের মধ্যে ৪২ টিতেই জয়ের লক্ষমাত্রা নিয়ে লোকসভা নির্বাচনে ঝাঁপিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু মাত্র ২২ টি আসন পেয়েছে দল। অন্যদিকে প্রতিপক্ষ বিজেপি পেয়েছে ১৮ টি আসন। প্রায় ৩৯ শতাংশ ভোট পেয়েছে বিজেপি। শুধু তাইই নয়ই ৮ বিধানসভার উপ নির্বাচনেও বিজেপির কাছে ধাক্কা খেয়েছে দল। চারটিতেই জয়ী হয়েছেন বিজেপি প্রার্থীরা। লোকসভা নির্বাচনে যা ফল হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে ১৩৬ টি বিধানসভায় পরাজিত হয়েছে তৃণমূল। এই ফল নিসন্দেহে তৃণমূলের কাছে একটা বড় ধাক্কা বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ। বিশেষ করে ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই ফল দলের কাছে মোটেও স্বস্থিদায়ক নয় বলেই অভিমত তাঁদের।
 এই প্রেক্ষিতেই আজ বৈঠক ডেকেছেন মমতা। সূত্রের খবর– কেন পরাজয় হল সেটা প্রার্থীদের কাছ থেকে জানতে পারেন মমতা। কোথায় কোথায় সাংগঠনিক দুর্বলতা ছিল– জেলা সভাপতি ও পর্যবেক্ষকদের কাছেও সে বিষয়ে কৈফিয়েত চাইবেন তিনি। বিজেপি যে এই অবস্থায় দলকে ভাঙাতে উঠে পড়ে লাগবে নেতাদের সেই সতর্কবানীও শোনাতে পারেন মমতা।
 তবে আর একটা সূত্রের খবর– এই বৈঠকে মূলত দলকে ঘুরে দাঁড়ানোর বার্তা দেবেন মমতা। সমস্ত কিছু ভুলে পাল্টা লড়াইয়ের ডাক দিতে পারেন তিনি। এ ব্যাপারে এক বর্ষীয়ান তৃণমূল নেতা বলেন– খারাপ সময়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও বেশী জেদী হয়ে ওঠেন। অতীতে বহুবার সেটা আমরা দেখেছি। সহজে হেরে যাওয়ার পাত্রী নন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই আমার মনে হয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আবার ঘুরে দাঁড়াবেন। তাছাড়া এটাও মনে রাখতে হবে আশানুর*প ফল না হলেও আমরা ২২ টি আসন পেয়েছি।’
প্রসঙ্গত বৃহস্পতিবার ফল বেরোনোর দিন কোনও সাংবাদিক বৈঠক করেননি তৃণমূলনেত্রী। শুধুমাত্র একটা টুইট করেছিলেন তিনি। সূত্রের খবর বৃহস্পতিবারের পাশাপাশি শুক্রবারও গোটা দিন বাড়িতেই ছিলেন তিনি। এই অবস্থায় শনিবারের বৈঠকের একটা বিশেষ তাৎপর্য আছে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। শুক্রবার তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিমের কাছে এই পরাজয়ের কারণ সম্পর্কে জানতে চায় সংবাদ মাধ্যম। তিনি বলেন– এই বিষয়ে আমাদের আত্মসমীক্ষা করতে হবে। একই সঙ্গে তিনি মোদি হাওয়ার কথাও উড়িয়ে দেননি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only