মঙ্গলবার, ১৪ মে, ২০১৯

ঝড়ে ব্যাপক ক্ষতি নলহাটিতে

দেবশ্রী মজুমদার
 ঝড়ে ব্যাপক ক্ষতি নলহাটিতে। নলহাটি- ২ ব্লকের ৬টি অঞ্চলের বারা -১, বারা-২, ন’পাড়া, ভদ্রপুর-১, ভদ্রপুর-২, শীতলগ্রামের বাড়ি ঘর ব্যপক ক্ষতির শিকার। ৬টি পঞ্চায়েতের পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির সংখ্যা ২৫টি। আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত ২৮৫টি বাড়ি।  ইতিমধ্যে জেলা
Representational image
তে সেই রিপোর্ট পৌঁছে গেছে। নলহাটি- ২ ব্লকের বিডিও রাজদ্বীপ শঙ্কর গৌতম বলেন, ৬টি পঞ্চায়েতের পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির সংখ্যা ২৫টি। আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত ২৮৫টি বাড়ি।  ইতিমধ্যে জেলাতে সেই রিপোর্ট পৌঁছে গেছে। প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ক্ষেত্রে প্রধানকে ত্রিপল দেওয়া আছে। জানা গেছে, নলহাটি-২ ব্লকের ৬টি অঞ্চলের মধ্যে  ন’পাড়া অঞ্চলের সুজাপুর গ্রামে ঝড়ে ক্ষতি প্রচণ্ড হয়েছে।  সুজাপুরের বাসিন্দা রেজিনা বিবি। তাঁর স্বামী চেন্নাইয়ে মজদুরি করে। তাঁর ঘরের খড়ের চালের বাড়ি পড়ে গেছে। একই অবস্থা ওই গ্রামের মূর্শিদাবিবি স্বামী কোলকাতায় মজদুরি করে।  তাঁর বাড়ির টালির চাল উড়ে গেছে।  একইভাবে পিন্টু সেখ দিল্লীতে মজদুরি করে। উনার খড়ের চালের বাড়ি। এই ঝড়ে বাড়ির চাল উড়ে গেছে। সেপ্টু সেখ কোলকাতায় মজদুরি করে। তাঁর বাড়ির চাল উড়ে গেছে। ওই একই গ্রামে থাকেন নাজ মুন্নাহার বিবি। তাঁর বাড়ির খড়ের চাল উঠে গেছে।  অন্যদিকে, রহেব সেখের বাড়ির পাঁচিল পড়ে গেছে। জামাল সেখ ও আজিজুল সেখের গাছ ভেঙে গেছে পুকুরের পাড়ে।  একই অবস্থা সাহেবুল সেখের বাড়ির। তিনি কোলকাতায় মজদুরির কাজ করেন। তাঁর টিনের বাড়ির চাল উড়ে গেছে।  গ্রামের আরেক বাসিন্দা নয়ন মালের ঘরের খড়ের চালা উড়ে গেছে।  একইভাবে শ্রাবনী মালের চালা ঘর উড়ে গেছে। তাঁর স্বামীও বাইরে কাজ করেন। এখন মাথার উপর কিছু নেই।  একই এলাকার বাসিন্দা হারুন মোল্লার টিনের চালের বাড়ি।  তাঁর বাড়ির টিনের চাল উড়ে অন্যত্র উড়ে পড়েছে। অন্যদিকে, মুরারইয়ে বেশ কিছু জায়গায় ঝড়ে বাড়ি ঘরের ব‍্যপক ক্ষতি হয়েছে।  পাশাপাশি, বোলপুর শান্তিনিকেতন রোডে গাছ ভেঙে পড়ে সোমাবার রাতে যান চলাচল বন্ধ হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only