মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০১৯

না ফেরার দেশে সাহিত্যিক অদ্রীশ বর্ধন

না ফেরার দেশে চলে গেলেন সাহিত্যিক অদ্রীশ বর্ধন। কল্পবিজ্ঞান কাহিনির লেখক হিসেবে তিনি বাংলা সাহিত্যে অসামান্য অবদান রেখেছেন। মঙ্গলবার সকালে নীলরতন সরকার হাসপাতালে প্রয়াত হন ‘প্রফেসর নাটবল্টুচক্র’-এর স্রষ্টা। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৭। বার্ধক্যজনিত রোগে বেশ কয়েক বছর ধরেই ভুগছিলেন অদ্রীশ। তাঁর সৃষ্ট ডিকেটটিভ ইন্দ্রনাথ রুদ্র, লেডি ডিটেকটিভ নারায়ণী, ফাদার ঘনশ্যাম, প্রফেসর নাটবন্টু চক্র ইত্যাদি চরিত্র শুধু ছোটদের নয়, বড়দেরও সমান ভাবে আকর্ষণ করে। সায়েন্স ফিকশনের বাংলা প্রতিশব্দ তিনিই প্রথম আবিষ্কার করেন – কল্পবিজ্ঞান।বাংলায় কল্পবিজ্ঞান লেখা শুধু নয়, সাধারণ বাঙালি পাঠক-পাঠিকার মধ্যে বিজ্ঞানমনস্কতা জাগিয়ে তোলার কাজেও অগ্রণী ভূমিকা পালন করে গেছেন অদ্রীশ বর্ধন।

 অদ্রীশ বর্ধনের জন্ম কলকাতায়, এক শিক্ষক পরিবারে, ১৯৩২-এর ১ ডিসেম্বরে।অ্যাডভেঞ্চারের টানে জীবনে অনেক পেশার সাথে যুক্ত ছিলেন। চাকরি, ব্যবসা ও সাহিত্যসাধনা। পরে নামী একটি প্রতিষ্ঠানের পারচেজ ম্যানেজার-পদে ইস্তাফা দিয়ে পুরোপুরি চলে আসেন লেখার জগতে। গোয়েন্দা কাহিনী দিয়ে লেখালেখির শুরু করেন। ভারতের প্রথম কল্পবিজ্ঞান-পত্রিকা আশ্চর্য-র সম্পাদক। পত্রিকা, রেডিও, ফিল্ম ক্লাবের মাধ্যমে কল্পবিজ্ঞানকে আন্দোলন-আকারে সংগঠিত করেন । পেয়েছেন একাধিক পুরস্কার। ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only