সোমবার, ২৭ মে, ২০১৯

উচ্চ মাধ্যমিকে জোড়া ফলক বীরভূমের

রাজ্যে সকলের মধ্যে প্রথমের সাথে সাথে কলা বিভাগেও রাজ্যের প্রথম স্থানটি ছিনিয়ে নিয়েছে বীরভূম। রাজ্যে প্রথম বীরভূম জেলা স্কুলের শোভন মন্ডলের পাশাপাশি সাঁইথিয়া টাউন উচ্চ বিদ্যালয়ের রাকেশ দে রাজ্যের চতুর্থ স্থানের সাথে পেয়েছে কলা বিভাগে প্রথমের শিরোপা।
দিন দিন কমছে সৎ-আদর্শবান মানুষের সংখ্যা। তাই জীবনের প্রথম লক্ষ্য মানুষের মত মানুষ হওয়া। কলাবিভাগে রাজ্যে প্রথম হওয়া রাকেশ দে তার ফল জানার পর প্রথম প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন এমনটাই। মাধ্যমিকে রাকেশ হয়েছিল রাজ্যে দশম। সাফল্য আরও অনেকটাই বাড়ি নিয়েছেন বিরাট কোহলি ও ক্রিকেট বলতে অজ্ঞান এই ছাত্র। সব কিছু ছেড়ে তার চোখ এখন ক্রিকেট বিশ্বকাপের দিকে। ভারতকে চ্যাম্পিয়ন দেখার জন্য মুখিয়ে রয়েছে সে। ইতিহাস প্রিয় বিষয় এই মেধাবী ছাত্রের। বড় হয়ে সে চায় ইতিহাসের অধ্যাপক হয়ে সত্যের সন্ধান তা ছাত্র-ছাত্রীদের দিতে। রাকেশ দে জানিয়েছেন, ‘‘মাধ্যমিকে দশম স্থান পাওয়ার পর সাঁইথিয়াবাসীর কাছ থেকে যে ভালোবাসা পেয়েছিলাম তাতে দায়বদ্ধতা আরও বেড়ে গিয়েছিল। এই সাফল্য আমি উৎস্বর্গ করতে চাই সমগ্র সাঁইথিয়াবাসীর জন্য।’’ পাঠ্যপুস্তকের উপর সবচেয়ে বেশী জোর দেওয়ার কথাই বলেছেন ৪৯২ নম্বর পাওয়া এই ছাত্র। পড়াশুনার পাশপাশি একটি অভিনব শখ আছে এই ছাত্রের। তার কথায়,‘‘ক্রিকেট ছাড়া আমি থাকতে পারি না। ক্রিকেট তো দেখিই পাশাপাশি ভারতের হয়ে খেলা ক্রিকেটারদের ছবি ডায়রীতে লাগানো আমার বরাবরের শখ।’’ রাকেশের বাবা রঘুনাথ দে পেশায় বিএসএনএল কর্মী এবং মা কাকলী দে গৃহবধূ। রাকেশের বিষয়ভীত্তিক নম্বর হল, দর্শন-১০০, সংস্কৃত-৯৮,রাষ্ট্রবিজ্ঞান-৯৮,বাংলা-৯৯,ইতিহাস-৯৭।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only