শনিবার, ১৮ মে, ২০১৯

ছাত্রের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার বিশ্বভারতী ছাত্রাবাসে, এলাকায় চাঞ্চল্য

দেবশ্রী মজুমদার, শান্তিনিকেতন, ১৮ মেঃ বিশ্বভারতীর নন্দন ছাত্রাবাস থেকে প্রথম বর্ষের এক ছাত্রের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারকে ঘিরে চাঞ্চল্য। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান ছাত্রটি আত্মহত্যা করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। প্রশাসনিক সূত্রে জানা গেছে, মৃত ছাত্রের নাম পার্থ দাস (১৯)। বাড়ি রামপুরহাটের রামরামপুরে।
জানা গেছে, গ্রীষ্ম অবকাশ শেষের দিকে। তাই নিয়মমাফিক হপ্তা খানেক আগেই অন্যান্যদের মত পার্থ নন্দন ছাত্রাবাসে এসেছিল। আগে পাঠভবনের ছাত্র ছিল সে। বর্তমানে শিক্ষাভবনের বিজ্ঞান বিভাগে গণিতে অনার্স নিয়ে পড়াশোনা করছিল সে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে নন্দন বয়েজ হোস্টেলে থাকত সে।  
তার সহপাঠীদের সূত্রে জানা গেছে, সকলেই টিফিন খেতে গেলেও, শনিবার পার্থ টিফিন খেতে যায়নি। তাকে জিজ্ঞেস করলে, সে সহপাঠীদের জানায় যে সে আজ টিফিন খাবে না। এক ঘন্টা বাদে যখন তার রুমমেটরা ফিরে আসে তারা দেখতে পায় ঘরের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। তারা বেশ কিছুক্ষণ ধরে ভিতর থেকে ডাকে, কিন্তু কোন উত্তর পাওয়া যায়নি। তারপর জানালার ফাঁক দিয়ে দেখা যায়, গলায় গামছা নিয়ে সে ঝুলছে। চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে নিরাপত্তাকর্মীরা। উদ্ধার করে তার মৃতদেহ। শান্তিনিকেতন থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। ময়না তদন্তের জন্য মৃতদেহ পাঠানো হয় বোলপুর হাসপাতালে। মৃতর সহপাঠীরা জানিয়েছে, ওই ছাত্র কেন আত্মহত্যা করল তা তাদের জানা নেই। এ’কদিন স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরে অতিরিক্ত ফী বৃদ্ধি নিয়েই উত্তাল বিশ্বভারতী। তার মাঝেই এই আত্মহত্যার ঘটনা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only