বুধবার, ১৯ জুন, ২০১৯

ক্যাপ্টেন তামান্না এবং ক্যাপ্টেন নাইমাকে জাতিসংঘের সম্মান

এবার জাতিসংঘ সম্মান জানালো ক্যাপ্টেন তামান্না এবং ক্যাপ্টেন নাইমাকে বাংলাদেশের প্রায় প্রত্যেকটি সংবাদ মাধ্যমেই তাঁরা জনপ্রিয় তারকা হয়ে উঠেছেন। তাঁদেরকে নিয়ে প্রতিনিয়ত খবর লেখা হয়েছে। অবশেষে জাতিসংঘও সম্মান জানালো তাঁদের৷ 

২০১৪ সালে প্রথম নারী পাইলট হিসেবে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন তামান্না-ই-লুৎফী এবং  নাইমা হক৷ ২০১৭ সালে জাতিসংঘ শান্তি মিশনে যোগ দিতে তামান্না আর নাইমাও যান কঙ্গোতে৷ সেই সূত্রে তাঁদের দক্ষতার নতুন স্বীকৃতি পেতে দেরি হয়নি৷
উল্লেখ্য, ২০০৩ সাল থেকে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সদস্যরা জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে যোগ দিচ্ছেন৷
সম্প্রতি এই পুরো বিষয়টি ইউটিউবে ভিডিওটি পোস্ট করেছে জাতিসংঘ৷ ইউটিউবে ভিডিও পোস্টের শিরোনাম দেওয়া হয়েছে ''বাংলাদেশি ফিমেল পাইলটস ফ্লাইং ফরোয়ার্ড'' । সেই ভিডিওতে এই দুই নারীর জীবনে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার গল্প ফুটে উঠেছে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only