শুক্রবার, ৭ জুন, ২০১৯

একশো দিনের কাজে তৃণমূল-বিজেপির কাজিয়া তুঙ্গে

দেবশ্রী মজুমদার, রামপুরহাট, ০৭ জুনঃ  পুকুর না কেটেই একশো দিনের কাজে পুকুর কাটার প্রথম কিস্তির টাকা তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠল ময়ুরেশ্বরে। আর সেই অভিযোগের তদন্তের নির্দেশ দিতেই  একটি সমতল জায়গায় পুকুর কাটানোর কাজ শুরু হতেই  তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে কাজিয়া তুঙ্গে। ঘটনাটি ঘটে ময়ূরেশ্বর এক ব্লকের ঝিকড্ডা পঞ্চায়েতের মহুরাপুর গ্রামে। গ্রামবাসীদের একাংশের দাবি, শুধুমাত্র  রাজনৈতিক কারণে  তাদের পুকুর খননের কাজ দেওয়া হচ্ছে না। এই দাবি নিয়ে অশান্তি দুই পক্ষের মধ্যে।  এই বিবাদের জেরে কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে ময়ূরেশ্বর এক ব্লকের বিডিও গোরাচাঁদ বর্মন।

জানা গেছে, ঝিকড্ডা পঞ্চায়েতের মহুরাপুর গ্রামে ৬৬১ দাগের ৭১  জে এল নম্বরের দাগে  একশো দিনের কাজে পুকুর খননের জন্য বরাদ্দ হয় ২ কোটি ৮৫ লক্ষ টাকা। গ্রামের বিজেপি সমর্থকেরা বিডিও অফিসে অভিযোগ করে ওই দাগে পুকুর খনন না করেই পাশের একটি পুকুরে জল ভরে দিয়ে কাজের প্রথম কিস্তির টাকা তুলে নেওয়া হচ্ছে।  বিডিও অভিযোগের সরজেমিনে তদন্তের নির্দেশ দেন। গ্রামবাসীদের একাংশের দাবি,  অবস্থা বেগতিক বুঝে তড়িঘড়ি নির্দিষ্ট পুকুরের পাশের একটি সমতল জমিতে খননের কাজ শুরু হয় এদিন। চারদিন ধরেই সেই কাজ চলছে।  এদিন  তির ধনুক নিয়ে জয় শ্রী রাম ধ্বনি তুলে কয়েক’শ শ্রমিক পুকুরের সামনে হাজির হয়। এই যুযুধান পরিস্থিতির মধ্যে কাজ আপাতত বন্ধ।  পঞ্চায়েত সমিতির বিদ্যুত কর্মাধ্যক্ষ শ্যামল বিত্তার জানান, এলাকায় শাসকদল বিজয়ী। এখানে সন্ত্রাস সৃষ্টি করতে চাইছে বিজেপি।  কাজে যোগ দিতে করতে আসা শ্রমিকদের দাবি, কাজ করতে এসে ফিরে যেতে হচ্ছে। রাজনীতির জন্য আজ কাজ হল না। আমরা এবার খাব কি?

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only