বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০১৯

দৃষ্টিহীনদের জন্য আসছে ডিজিটাল কুরআন

অন্ধ বা দৃষ্টিহীনদের জন্য ইতিমধ্যেই আবিষ্কূত হয়েছে ব্রেইল কুরআন। এবার আরও উন্নতমানের ডিজিটাল পদ্ধতিতে কুরআন তৈরি করতে চলেছেন সৌদি আরবের এক তরুণ গবেষক। দৃষ্টিহীনরা যাতে খুব সহজে পবিত্র কুরআন শিখতে ও পড়তে পারেন– সে জন্য উন্নততর প্রযুক্তিতে এই ডিজিটাল কুরআন তৈরির কাজ শীঘ্রই শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন মেশাল আল-হারাসানি। এই যান্ত্রিক কুরআন হবে ২৮টি ক্যারেক্টারের একটি ইলেকট্রনিক বোর্ড। প্রতি ক্যারেক্টারে ৬টি করে ব্রেইল বর্ণ থাকবে। বোর্ডটির ওপর থাকবে মোট ২৮টি সারি। তাঁর দাবি– এই ডিজিটাল সিস্টেমে অন্ধ বা দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ভাইবোনেরা আরও সহজে কুরআন পড়তে পারবেন। এক পাতা থেকে অন্য পাতায় সহজেই যেতে পারবেন। এ জন্য পাতা ওল্টাতে হবে না। ১১৪টি সূরা সম্বলিত সমগ্র কুরআন এই বোর্ডেই নিবন্ধিত থাকবে। ব্রেইল কুরআনে এ সব সুবিধা নেই।
তাঁর কথায়– অন্ধ মানুষেরা আল্লাহ্র অফুরান নিয়ামাতের ভাণ্ডার এই পথিবীর কোনও কিছুই দেখতে পান না। তাঁদের জীবনযাপন খুবই চ্যালেঞ্জের। কিন্তু তাঁরাও তো আল্লাহ্র সৃষ্টি। তাই আল্লাহ্র পক্ষ থেকে মানবজাতির পথনির্দেশিকা হিসেবে পাঠানো পবিত্র কুরআনকে জানার– পড়ার– বোঝার অধিকার তাঁদেরও আছে। এই ভাবনা থেকেই দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য আরও সহজ পদ্ধতিতে তৈরি করা হবে এই ডিজিটাল কুরআন।
মাত্র ৩০ বছর বয়সেই ৫০-এরও বেশি মানবিক ও সামাজিক বিভিন্ন বিষয়ে উদ্ভাবন ও আবিষ্কার করেছেন মেশাল আল-হারাসানি। সৌদি আরবের কিং আবদুল আজিজ ইউনিভার্সিটির উপদেষ্টা পদে রয়েছেন তিনি। যত শীঘ্র সম্ভব এই ডিজিটাল কুরআন তৈরির কাজ শুরুর লক্ষ্যে এখন যুদ্ধকালীন তৎপরতায় গবেষণা চলছে। তাঁর নেতৃত্বে এই গবেষক দলে এক বিরাট টিম দিনরাত পরিশ্রম করছেন। উল্লেখ্য– এর আগে তিনি যেসব আবিষ্কার করেছেন– তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল অন্ধদের ব্যবহারের জন্য মোবাইল ফোন– অন্ধদের সুবিধার্থে বিশেষ ধরনের কারেন্সি বা নোট– শারীরিক ও মানসিক প্রতিবন্ধীদের জন্য এক্সপ্রেস ট্রেন এবং বিমানে আসন সংরক্ষণের ব্যবস্থা ইত্যাদি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only