বুধবার, ১২ জুন, ২০১৯

সাত মাসে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতির হার

 এপ্রিলে ছিল ২.৯৯ শতাংশ। মে-তে বেড়ে ৩.০৫। মুদ্রাস্ফীতির বাড়বাড়ন্তের মধ্যে মূল খবর হল যে– গত সাত মাসের রেকর্ড ভেঙে মুদ্রাস্ফীতি বেড়ে ৩.০৫ শতাংশে দাঁড়িয়েছে এই মে মাসে– যা বাঘা অর্থনীতিবিদদের পূর্বে কষা সমস্ত অঙ্ককেই ভুল প্রমাণ করে দিয়েছে। বুধবার সরকারি সূত্রে প্রকাশিত তথ্যে দেখা যাচ্ছে– গত সাত মাসের মধ্যে মোদি সরকারের প্রত্যবর্তনের মাসেই সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতি। ২০১৮-এর অক্টোবরে মুদ্রাস্ফীতির হার বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছিল ৩.৩৮ শতাংশ।
গত সপ্তাহেই রয়টার্সের একটি সমীক্ষায় ৪০জনের বেশি অর্থনীতিবিদ আশা করেছিলেন যে– মে মাসে মুদ্রাস্ফীতির হার হতে পারে সর্বোচ্চ ৩.০১ শতাংশ। তাদের সেই পূর্ব ধারণাকে ভুল প্রমাণ করেছে সদ্য প্রকাশিত এই তথ্য।
খাদ্যবস্তুর ক্ষেত্রে এপ্রিল মাসে মুদ্রাস্ফীতির হার ছিল ১.১ শতাংশ– যা মে মাসে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১.৮৩তে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য– কোনও নির্দিষ্ট সময়ে পণ্য-মূল্য টাকার অঙ্কে বেড়ে গেলে অর্থনীতির ভাষায় তাকে মুদ্রাস্ফীতি বলে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only