শনিবার, ২৯ জুন, ২০১৯

রাতের ট্রেনে ছিনতাই, যাত্রী বিক্ষোভ!

দেবশ্রী মজুমদার, রামপুরহাট, ২৯ জুন:- রাতের ট্রেনে ছিনতাই, যাত্রী বিক্ষোভ রামপুরহাটে। ঘটনার প্রেক্ষিতে রামপুরহাট ও মালদায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে বলে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে, শনিবার রাত্রে বর্ধমান–সাহেবগঞ্জ লুপলাইনে নোয়াদার ঢাল থেকে গুসকরা ষ্টেশনের মাঝে। স্বাভাবিক ভাবেই ট্রেন সফরে যাত্রী নিরাপত্তা বড়সড় প্রশ্নের মুখে। ঘটনার জেরে দুষ্কৃতীদের হাতে জখম দুই মহিলা যাত্রী। ঘটনার তদন্তে রেল পুলিশ।  
জানা গেছে,  ১৩১৫৩ আপ গৌর এক্সপ্রেসের শীততাপ নিয়ন্ত্রিত এট্যু সংরক্ষিত কামরায় উঠে পড়ে ছিনতাইকারীরা। রাত্রি ২ টো নাগাদ দুষ্কৃতীরা চেন টেনে ট্রেন থামায়। এরপর  চারজন দুষ্কৃতি শীততাপ নিয়ন্ত্রিত এট্যু কামরায় উঠে ছিনতাই শুরু করে। তারা তিনজনের কাছ থেকে যথাক্রমে তিনটি স্মার্ট ফোন, সোনার গয়না, নগদ কয়েক হাজার টাকা ছিনতাই করে পালিয়ে যায়। পালাবার সময় দুই মহিলা দুষ্কৃতীদের মধ্যে একজনকে আঁটকাবার চেষ্টা করে। সে সময় অপর একজন দুষ্কৃতী রেললাইনের ধারের পড়ে পাথর দিয়ে দুই মহিলাকে আঘাত করায় ওই দুষ্কৃতি পালাতে সক্ষম হয়, বলে সূত্রের খবর। আহতদের মধ্যে একজন মহিলার নাম দেবলীনা সিনহা। বাড়ি মালদার ইংরেজবাজার। দেবলিনা সিনহার একটি সোনার বালা, মোবাইল এবং কয়েক হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায় বলে জানা গিয়েছে। এছাড়াও পরমজিৎ সিংহ নামে এক সেনা জওয়ানের কাছ থেকে একটি স্মার্ট ফোন ও কিছু টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতিরা। এরপর ভোর ৪ টে ১৩ মিনিটে ট্রেনটি রামপুরহাট ষ্টেশনে ঢোকে। সেখানে রেলপুলিশকে দেখে যাত্রীরা ক্ষোভে ফেটে পড়ে বলে জানা গেছে। ট্রেনে ছয় জন পুলিশ কর্মী থাকলেও ঘটনার সময় কারও দেখা মেলেনি বলে অভিযোগ ওঠে। রামপুরহাট ষ্টেশনে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা করে ছেড়ে দেওয়া হয়। ঘণ্টাখানেক পর ট্রেনটি মালদার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পূর্ব রেলওয়ের জনসংযোগ আধিকারিক নিখিল চক্রবর্তী জানান, অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে পুলিশ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only