শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০১৯

"এসমা" কী ও কেন?

১৯৬৮ সালে সংসদে অনুমোদিত অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা রক্ষণাবেক্ষণ আইন( এসেনশিয়াল সার্ভিস মেইনটেন্যান্স অ্যাক্ট)।
স্বাভাবিক জনজীবন ব্যাহত না হয় এমন পরিষেবা জারি রাখাই এই আইনের লক্ষ্য।
এর আওতায় রয়েছে সরকারি পরিবহন, স্বাস্হ্য- পরিষেবা, ডাক ও টেলিফোন, রেল, বিমানবন্দর ও সমুদ্রবন্দর পরিষেবা।
ভারতের সংবিধানের সপ্তম তফসিলের যুগ্ম তালিকায় ৩৩ নং তালিকার অধীনে এসমা আইন চালু করে সংসদ।
প্রতিটি রাজ্যেরই নিজস্ব এসমা আইন রয়েছে, যা কেন্দ্রীয় আইন থেকে আলাদা।
নির্দিষ্ট কোনও অঞ্চলে জরুরী পরিষেবায় বাধা সৃষ্টি হলে , কোন রাজ্য সরকার এককভাবে কিংবা অন্য রাজ্যের সঙ্গে মিলিতভাবে এই আইন প্রয়োগ করতে পারে।
এসমা জারি হলে ধর্মঘট ডাকা যায় না। বনধ বা কার্ফুর অজুহাতে অফিসে গরহাজির থাকা যায় না। এসমা আইন ভাঙলে ওয়ারেন্ট ছাড়াই পুলিশ গ্রেফতার করতে পারে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only