মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০১৯

ভারতের বিভিন্ন জায়গায় মুরসির গায়েবানা জানাযা

ইসলামপুরে জানাযার নামাযের একাংশ
মিশরে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রথম রাষ্ট্রপতি ড. মুহাম্মদ মুরসির ইন্তেকালে শোকস্তব্ধ মুসলিম জাহান। মঙ্গলবার ভোরে কায়রোতে তাঁকে দাফন করা হয়। তার আগেই সোমবার গায়েবানা জানাযা হয়েছে বায়তুল মুকাদ্দাসে। পিছিয়ে নেই এই দেশও। মঙ্গলবার মাগরিবের নামাযের পর নয়া দিল্লিতে জামায়াতে ইসলামি হিন্দের সদর দফতরের মসজিদে (মসজিদ ইশাত-ই-ইসলাম) গায়েবানা জানাযার নামায অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের ইসলামপুরেও মুরসির গায়েবানা জানাযা হয়েছে। ইসলামপুর মিল্লাত পাঠাগারে এই নামাযে উল্লেখযোগ্য-সংখ্যক মানুষ অংশগ্রহণ করেন। এই জানাযার অন্যতম উদ্যোক্তা তৌসিফ আহমেদ ফয়সাল জানান, আমাদের জেলা ছাড়াও অন্যান্য রাজ্যে মুহাম্মদ মুরসির গায়েবানা জানাযার নামায পড়া হয়েছে। তাতে উপস্থিতির সংখ্যাও চোখে পড়ার মতো। মুহাম্মদ মুরসির মতো একজন জনপ্রিয় নেতার মৃত্যুতে এমনটা ঘটাই স্বাভাবিক বলে মনে করেন তিনি।
 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সোমবার সন্ধ্যায় আদালতের শুনানিতে উপস্থিত থাকাকালীন ৬৭ বছর বয়সি অধ্যাপক মুরসি অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং অজ্ঞান হয়ে যান। হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয়। মিশরের গণতন্ত্রের ইতিহাসে তিনি ছিলেন প্রথম বৈধ রাষ্ট্রপতি। কিন্তু মার্কিনি সুরে সুর না মিলিয়ে চলায় পশ্চিমাদের ষড়যন্ত্রে সামরিক অভ্যুত্থান ঘটিয়ে একবছরের মধ্যে তাঁকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only