শুক্রবার, ২১ জুন, ২০১৯

মাদ্রাসা শিক্ষকদের জন্য উর্দু জানা আবশ্যিক নয়, বলছে যোগী সরকার

পুবের কলম, ২১ জুন: যোগীর রাজ্যে মাদ্রাসায় পড়ানোর জন্য শিক্ষকদের আর উর্দু জানা বাধ্যতামূল্য নয়। এমনই প্রস্তাব রেখেছেন যোগী সরকার। যোগীর গেরুয়াকরণের রাজনীতির অংশ হিসাবে বিষয়টি নিয়ে অনেক দিন ধরেই জলঘোলা হচ্ছিল। এখন পাকাপাকি ভাবে এটা চালু করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।
জানা গিয়েছে,  উত্তরপ্রদেশে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত মাদ্রাসাগুলিতেও শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ হওয়ার জন্য উর্দু ভাষা জানা আবশ্যিক। কিন্তু বর্তমানে সেই শর্তকেই তুলে দিতে চাইছেন যোগী।
তবে বিরোধীরা, যোগীর এই প্রস্তাবের কড়া সমালোচনা করছেন। বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন মাওলানা বাসির তাওকি। তিনি বলেছেন, মাদ্রাসার শিক্ষক, অথচ তিনি উর্দু জানবে না এমন ঘটনা কি কোনও দিন ঘটেছে? উর্দু না জানলে ছাত্রদের সঙ্গে কোন ভাষায় কথা বলবেন সেই শিক্ষক? কারণ, বেশির ভাগ মাদ্রাসায় উর্দুই কথা বলার মাধ্যম। কি করে সেই শিক্ষক তা আয়ত্ত করবেন?
সরকারি কর্মকর্তাদের কথা অনুযায়ী, এই বিষয়টি নিয়ে অনেক দিন ধরে কথাবার্তা চলছিল। প্রকল্পটির ব্লুপ্রিন্ট তৈরি রয়েছে। সংখ্যালঘু উন্নয়ন দফতরকে বিষয়টি নিয়ে কেবিনেট রিপোর্ট তৈরি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যাতে সরকার বিষয়টি দ্রুত বলবৎ করতে পারে।

তবে প্রাথমিকভাবে প্রস্তাব অনুযায়ী, বিজ্ঞান ও গণিতের শিক্ষক নিয়োগের জন্য এই নিয়মটি বলবৎ থাকবে। পরবর্তীতে, এটিকে অন্যান্য বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে লাগু করা হবে। উত্তরপ্রদেশ সরকার বলছে, উর্দু জানা বাধ্যতামূলক থাকায়, মাদ্রাসাগুলিকে গণিত ও বিজ্ঞানের শিক্ষকের আকাল রয়েছে। তাই সিদ্ধান্তটি দ্রুত বলবৎ করতে  তারা এই দুটি বিষয়ের জন্য শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞাপন দিয়েছেন। সেখানে উর্দু বাধ্যতামূলক নয় হিসাবে বলেই উল্লেখ করা হয়েছে। তবে সংখ্যালঘু উন্নয়ন দফতরের মন্ত্রী মহসিন রেজা জানিয়েছেন, ছাত্রদের স্বার্থেই তারা এই সিদ্ধান্ত নিতে রাজি হয়েছে। তবে, সমালোচকরা সে কথা মানতে নারাজ তারা বলছেন শিক্ষা ক্ষেত্রে মাদ্রাসা কমিয়ে ফেলার জন্য যোগী নতুন চাল চালছেন। এইভাবে মাদ্রাসা উঠিয়ে দেওয়ার ফন্দি আঁটছেন তিনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only