মঙ্গলবার, ২ জুলাই, ২০১৯

কুরআনে হাফেজ ১০ বছরের বালক পেল আর্টিফিসিয়াল ইন্টালিজেন্স টেকনোলজি পুরস্কার



মাত্র ১০ বছর বয়সেই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ক্যাভিটি ক্রাশার তৈরি করে মার্কিনিদের মন জয় করল পাক বিস্ময় বালক মুহাম্মদ ইয়াসিরসম্প্রতি, তাকে তার পরিবার এআই পুরস্কার দিয়েছে আমেরিকা তারা করাচির বাসিন্দা। জানা গিয়েছে, ইয়াসিরের তৈরি করা এই ক্যাভিটি ক্রাশারের কাজ হল,বাচ্চাদের দাঁত প্রতিদিন সঠিক পদ্ধতিতে পরিষ্কার করা হচ্ছে কি না, তা পর্যবেক্ষন করা এই যন্ত্রটি তৈরি করতে তার পরিবারে সহযোগীতা করায় ইয়াসিরের সঙ্গে তার অভিভাবককেও এই পুরস্কারে সামিল করা হয়েছে প্রায় 
সাড়ে সাত হাজার প্রতিযোগীকে হারিয়ে প্রথম ছয়ের মধ্যে স্থান করে নিয়েছে ইয়াসির।

সূত্রের খবর, ইয়াসির কুরআনে হাফেজ। কুরআন শিক্ষার পাশাপাশি বিজ্ঞান চর্চাতে আগ্রহ রয়েছে ইয়াসিরের। তাই এই যন্ত্র তৈরি করার সময় পরিবারের পাশাপাশি পাকিস্তান সায়েন্স ক্লাবও তাঁকে যথেষ্ট সাহায্য করেছিল।

আমেরিকার সান্তা ক্লারাতে এই প্রথম বিশ্ব প্রতিযোগীতার জুনিয়ার ভিডিশনের খেলার আয়োজন করা হয়েছিল।কিভাবে যন্ত্রটি তৈরি করা হয়েছে এবং কি ভাবে  কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার এই যন্ত্র মানুষের সাহায্য করছে তার ভিত্তিতে প্রতিযোগিদের নির্বাচন করা হয়েছে।
বর্তমানে শিশুদের জন্য সময় বের করা অভিভাবকদের পক্ষে মুশকিল হয়ে পড়ে। এছাড়া কোনও 

ইতিবাচক কাজে বাচ্চাদের সেভাবে অংশ নিতে দেখা যায় না। তাই ধরণের প্রতিযোগীতার মাধ্যমে সেই ঘটতি পূরণ করার জন্য, এটা একটা বড় প্রয়াস। বাচ্চাদের এই ধরণের প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করার উৎসাহ বাড়বে।

ইয়াসির জানিয়েছে, সে ইন্টারনেটে গবেষণা করে জানতে পেরেছিল বিশ্বের বেশিরভাগ শিশুই দাঁতের সমস্যা নিয়ে বেশি ভোগে। কারণ বেশির বাচ্চারাই দিনে চার মিনিট ধরে দাঁত মাজে না ফলে ক্যাভিটির সমস্যায় বেশি আক্রান্ত হয়। সেখান থেকে এই যন্ত্র আবিষ্কারে ভাবনাটি আসে তার। সন্তানরা সঠিক সময় অনুযায়ী দাঁত মাজছে কি না তার সমস্ত তথ্য অভিভাবকদের দিতে সাহায্য করবে এই যন্ত্র।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only