শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯

আমাদের ধমকে লাভ হবে না, এসবে আমরা ডক্টরেট:বিজেপিকে শুভেন্দু


নিজস্ব প্রতিনিধি, গরবেতা: ২১ এ জুলাই এর সমর্থনে পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা থানার অন্তর্গত ধাদিকা এলাকায় একটি সভার আয়োজন করেছিল তৃণমূল। এই সভাতে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক, বিভিন্ন জেলা নেতাকর্মীসহ তৃণমূল নেতা শুভেন্দু অধিকারী। সেখানে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বিজেপিকে আক্রামণ করলেন শুভেন্দু অধিকারী

এদিন সভায় বলেন-এই এলাকায় বিজেপি এগিয়ে গিয়েছে। তাহলে তাদের উচিত ছিল কোন উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ করা।কিন্তু বাজেটে কোন রকম তার ছিটেফোঁটাও দেখা গেল না।অন্যদিকে, সমস্ত কিছু বিক্রি করে বেসরকারিকরণের উদ্যোগ নিয়েছে ওঁরা। খুব শীঘ্রই রেল বিএসএনএল সবটাই বেসরকারি হাতে বিক্রি করে দেবে ওঁরা। আবাস যোজনা তে কেন্দ্র সামান্য কিছু অর্থ দিয়ে নিজেদের নামে চালাচ্ছিল। এখানে রাজ্যের বেশিরভাগ অর্থটাই দেওয়া হতো। রাজ্য সরকার ওদের সাহায্য বাতিল করে পুরোটাই দিয়ে বাংলা আবাস যোজনা নাম দিয়েছে।কৃষি বিমা যোজনা তে কুড়ি শতাংশ দিত কেন্দ্র।৮০ শতাংশ আমরা,তাই সেই কুড়ি শতাংশ বাতিল করে পুরোটাই দিচ্ছি এবং কোন ন্যাশনাল ব্যাংকের মাধ্যমে নয়, কো-অপারেটিভ ব্যাংক এর মাধ্যমে অর্থ সাহায্য দেওয়া হবে।   

জেলাজুড়ে বিজেপির আক্রমণ বিষয়ে তিনি বলেন-"বিভিন্ন জায়গায় ওঁরা ধমকাচ্ছে-চমকাচ্ছে। জল বন্ধ, কল বন্ধ, মানুষকে বাড়ি ছাড়া করে সেই পুরনো সন্ত্রাস ফিরিয়ে আনছে সিপিএম-এর নেতারা। এতে কোনো লাভ হবে না।


মনে রাখবেন, এই সব সামলাতে দিতে আমরা ডক্টরেট করে ফেলেছি। আমি নন্দীগ্রাম সামলেছি, এক একটা স্থানে সিপিএমের সন্ত্রাস বন্ধ করেছি।আমরা জানি কোন অসুখের কোন ওষুধ দিতে হয়। প্রথমে মুখে বলব, তা না হলে প্রয়োজনে ওষুধ প্রয়োগ করবো।গণতান্ত্রিক উপায়ে মোকাবেলা করুন। 
শুভেন্দুর সভার বিষয় গড়বেতার বিজেপি নেতা মদন রুইদাস বলেন- শুভেন্দু অধিকারী আসলে কাগুজে বাঘ।মানুষকে খুন করে তাদের রক্তে ক্ষমতায় এসেছে।ওঁদের মুখে গণতান্ত্রিক নিয়মের কথা মানায় না।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only