বুধবার, ৩১ জুলাই, ২০১৯

সিসিডি কর্ণধারের মৃত্যু নিয়ে মোদি সরকারকে তোপ মমতার

ক্যাফে কফি ডে’র কর্ণধার ভি জি সিদ্ধার্থের আত্মহত্যা নিয়ে মোদি সরকারকে বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার সন্ধ্যা থেকে নিখোঁজ থাকার পর বুধবারই নেত্রাবতী নদী থেকে তাঁর নিথর দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তদন্তকারীরা মনে করছেন–ব্যবসায় ব্যর্থতার কারণেই তিনি আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছেন। দেশের একজন সফল উদ্যোক্তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।  সিসিডি কর্ণধারের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি। সিসিডি কর্ণধারের মৃতু্য নিয়ে এ দিন সোশ্যাল সাইট ফেসবুকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লিখেছেন– রাজনৈতিক চাপের শিকার হয়েছেন ভি জি সিদ্ধার্থ। কেন্দ্রীয় সরকার বিভিন্ন এজেন্সি দিয়ে হেনস্থা কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই উদ্যোগপতী। উনি সেই চাপ নিতে পারেন নি। মুখ্যমন্ত্রী আরও লেখেন– সূত্র মারফত জানতে পেরেছি– বিভিন্ন এজেন্সির মাধ্যমে দেশের নামী শিল্পপতিদের উপর চাপ সৃষ্টি করছে কেন্দ্রীয় সরকার। ভয় পেয়ে অনেকেই দেশ ছেড়ে চলে গিয়েছেন। অনেকেই আবার দেশ ছাড়তে চাইছেন। আমি এই ঘটনার নিন্দা করছি।
শুধু ফেসবুকেই নয়– এ দিন সাংবাদিকদের নবান্নে এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন–দেশে এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে যে শিল্পপতিদেরও আত্মহননের পথ বেছে নিতে হচ্ছে। যখন জনপ্রিয় শিল্পপতিরা এমন পথ বেছে নেন– তখন সত্যিই দেশের জন্য তা খারাপ সময়।
তিনি আরও বলেন– এই সরকার আম জনতার ভোটে জিতে এসেছে ভালো কথা। এখন তাদের উচিত মানুষের জন্য ভালোভাবে কাজ করা। কিন্তু কার্যক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে গত পাঁচ বছরে দেশে যা চলছিল নতুন সরকারের সময়ও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। প্রত্যেক রাজ্যেই আমরা দেখছি ঘোড়া কেনাবেচা চলছে। এজেন্সি গুলির মিস ইউজ করা হচ্ছে। এমনকি শিল্পপতিদেরও রেওয়াত করা হচ্ছে না। সংবাদমাধ্যমও ছাড় পাচ্ছে না। আর কেন্দ্রের এই অপকর্মের ফল দেশ এবং দেশবাসীকে ভোগ করতে হচ্ছে।
মমতার কথায়– ইতিমধ্যেই এই সরকার চিত্তরঞ্জন লোকমোটিভ–এয়ার ইন্ডিয়ার মতো রাষ্টÉায়ত্ত সংস্থাকে বিলগ্নিকরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই মুহূর্তে দেশে বেকারত্বের হার গত ৪৫ বছরে সবচেয়ে বেশি। এই সরকারের নীতির ফলে দেশের অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হার নিম্নমুখী। এই অবস্থায় বহু শিল্পপতি দেশ ছেড়ে যেতে চাইছেন। এমনকি তারা আত্মহননের পথও বেছে নিচ্ছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only