বুধবার, ১০ জুলাই, ২০১৯

তড়িতাহত হয়ে মারা যাচ্ছে হাতি, ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন



নিজস্ব প্রতিনিধি,ঝাড়গ্রাম:রাতের বেলা হাতিকে ড্রাইভ করার সময় জঙ্গলের রাস্তায় ঝুলে থাকা বিদ্যুতের তার গায়ে লেগে মৃত্যু হল তিন দাঁতাল হাতির। এলাকায় ব্যাপক গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে বিদ্যুৎ দফতরের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়গ্রাম জেলার বিনপুর থানার অন্তর্গত সাতবাঁকি গ্রামে। প্রায় এক বছর আগেও একই ঘটনায় পশ্চিম মেদিনীপুরে মৃত্যু হয়েছিল দুই দাঁতালের।

মঙ্গলবার রাতে বিনপুরের কুশবনির জঙ্গল থেকে বেলপাহাড়ির দিকে ড্রাইভ করা হচ্ছিল ২০ টি হাতির একটি দলকে। সাবধানে বাচ্চা হাতিরগুলি সাতবাঁকি এলাকা পেরিয়ে গেলেও বড় দাঁতালগুলি গায়ে ১১ হাজার ভোল্টের ঝুলে থাকা বিদ্যুতের তারে ছুঁয়ে যায়।বিদ্যুতের তারে লেগে প্রচণ্ড চিৎকার শুরু করে ওই হাতিগুলি। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় তিন দাঁতালের।পরিস্থিতিতে কি ঘটেছে রাতেই বুঝতে পেরে যান হুলা পার্টি ও বন আধিকারিকরা । 

বুধবার ভোর বেলাই ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে যায় পুলিশ ও বনদফতরের আধিকারিকরা। মানুষের উপচেপড়া ভীড় তৈরি হয় সেখানে। এই ঘটনায় ফের বিদ্যুৎ দফতর এর উদাসীনতার অভিযোগ তুলেছেন গ্রামবাসীরা। বিদ্যুতের তারগুলি দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে থাকার কারণে এই ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি স্থানীয়দের। গত এক বছর আগে মেদিনীপুর সদর ব্লকের নেপুরা গ্রামে একই ভাবে দীর্ঘদিনের ঝুলে থাকা বিদ্যুতের তারের স্পর্শ হয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছিল দুই দাঁতাল হাতির। ঝাড়গ্রামেও একই ঘটনা ঘটল।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only