বুধবার, ৩ জুলাই, ২০১৯

জিনজিয়াং-এ পর্যটকদের মোবাইলে গোপন নজরদারি চালাচ্ছে চিন!


উইঘুরদের নিয়ে চিন যা বাড়াবাড়ি শুরু করেছে, তাতে জিনজিয়াং প্রদেশে এখন আন্তজার্তিক আলোচনার কেন্দ্র বিন্দু হয়ে উঠেছে।নিজেদের কুর্কীতি যাতে ফাঁস না হয়ে যায়, তাই এই প্রদেশে ঘুরতে আশা পর্যটকদের মোবাইলে গোপন নজরদারী শুরু করেছে চিন। পর্যটকদের অজান্তেই নজরদারি সফটওয়ের ইন্সটল করে দিচ্ছে চিনের সীমান্তরক্ষী বাহিনী। আর এত করে পর্যটকদের ইমেল, মেসেজ ও অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগের তথ্য চুরি সহ তাদের গতিবিধি ওপরও নজর রাখছে তারা। এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য দাবি করেছে কয়েকটি মার্কিন মিডিয়া।

সম্প্রতি সফরটওয়েরটি নিয়ে একটি অনুসন্ধান চালিয়ে ছিল নিউ ইয়র্ক টাইমস ও গার্ডিয়ান। অনুসন্ধানে দেখা যায়, চিনের সীমান্তবর্তী রাষ্ট্র  কিরগিস্তান থেকে নাগরিকরা জিনজিয়াং প্রদেশে আসতে গেলে তাদের লক্ষ বস্তুতে পরিণত করে চিন।বন্দি শিবিরগুলিতে উইঘুর ছাড়াও কিরগিজ ও কাজাখ মুসলিম রয়েছে।

মার্কিন সংবাদ মাধ্যমগুলির দাবি, জিনজিয়াং প্রদেশের রাস্তা ও মসজিদগুলিতে মুখাবয়ব দেখে পরিচয় সনাক্তকারী ক্যামেরা বসানো হয়েছে. ওই এলাকার বাসিন্দাদের গতিবিধির ওপর নজর রাখতে তাদের মোবাইলে বিতর্কিত ওই নজরদারি সফটওয়ের আপলোড করানো হচ্ছে।পর্যটনকরা জানিয়েছেন, সফটওয়ের আপলোড করার বিষয়ে আগে থেকে তাদের সতর্ক করা হয়নি। এই সফটওয়েরের মাধ্যমে চিনা প্রশাসন আসলে কি করছে তাও তারা জানেন না। ইরকেস্তাম সীমান্ত অতিক্রম করে চিনে প্রবেশ করা পর্যটকদের মোবাইল ফোন নিয়ে তাতে গোপনে নজরদারি সফটওয়ের আপলোড করা হচ্ছে বলে অভিযোগ।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only