শনিবার, ৬ জুলাই, ২০১৯

যে মন্দিরে বিরিয়ানি প্রসাদ

আপনি কি বিরিয়ানি ভক্ত? খাবার খাওয়ার কথা উঠলেই বিরিয়ানি, বিরিয়ানি মনটা করে। সুইগি বা জোমেটোতে বিরিয়ানিই হয় প্রথম এবং প্রধান সার্চিং মেন্যু। আর অফার পেলে তো খুশির অন্ত থাকে, না বলুন। এছাড়া ফেস্টিভ মুডে থাকলে তো সকাল থেকে শুরু হয়ে যায় বিরিয়ানি ভোজন।

কিন্তু আপনি কী জানেন ভারতবর্ষে এমন এক মন্দির আছে যেখানে প্রসাদে বিরিয়ানি বিলি হয়। বিশ্বাস হল না বলুন? তবে আপনার বিশ্বাস হোক বা না হোক এই ঘটনা কিন্তু একশো শতাংশ সত্যি।

দক্ষিণ ভারতের মাদুরাইয়ে একটি মন্দিরে বিরিয়ানিই হল প্রসাদ। মুনিয়ানডি স্বামী মন্দিরে ৮৩ বছর ধরে প্রথা মেনে বিরিয়ানি প্রসাদ হিসাবে বিলি হয়ে আসছে। মাদুরাই থেকে ৪৫ কিলোমিটার ভিতর রয়েছে এই মন্দির। প্রতি বছর জানুয়ারি ২৪ থেকে ২৬ তারিখ পর্যন্ত ভেদাকাম্পাতির গ্রামে থিরুমাঙ্গালাম তালুকে অবস্থিত এই মন্দিরে তিনদিন ধরে উৎসব হয়। সেই উৎসবের প্রসাদ হল বিরিয়ানি।


তবে, প্রসাদ যখন, তখন ভেজ বিরিয়ানি হয়ত দেওয়া হয়, এমনটাই মনে করবেন হয়ত। আজ্ঞ্যা না, তা এক দমই হয় না। বরং মাটন ও চিকেনে সমারহে বাননো হয় এই সুস্বাদু বিরিয়ানি প্রাসাদাম অর্থাৎ বিরিয়ানি প্রসাদ।

তিন ব্যাপী এই উৎসবের তৈরি বিরিয়ানি প্রসাদের জন্য লাগে দুহাজার কিলো চাল। গত বছর বিরিয়ানির জন্য ২০০টি খাসি এবং ২৫০টি মুরগি কাটা হয়েছিল। এবার হয়ত ভাবছেন, এমন অদ্ভুত নিয়ম কেন? কে চালু করল এই নিয়ম? স্থানীয়দের মত, মন্দিরের দেবতা মুনিয়ান্ডি আপনাদের মতই বিরিয়ানির ভক্ত ছিলেন। তাই তাঁকে তুষ্ট করেই এই আয়োজন। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only