শুক্রবার, ২৬ জুলাই, ২০১৯

কার ব্রেসলেট পরে বিদায় নিলেন টেরেসা ? জল্পনা


ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী এখন বরিস জনসন। তাই, ১০ ডাউন স্ট্রিটের বাড়িটিও বরিস জনসনের জন্য ছেড়ে দিতে হয়েছে টেরেসা মে-কে। কারণ, ডাউন স্ট্রিটের বাড়িটি ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর আবাসস্থল হিসাবে বরাদ্দ। তাই, নিয়মমত নয়া প্রধানমন্ত্রীর জন্য প্রাক্তণ প্রধানমন্ত্রীকে সেটিকে ছাড়তেই হয়।

বৃহস্পতিবার, যখন বরিস জনসন নিজের ফ্ল্যাট ছেড়ে ১০ নম্বর বাড়িটিতে যাওয়ার তোড়জোড় করছেন, সেই সময় ওই বাড়ি থেকে জনগণকে বিদায় জানালেন প্রাক্তণ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে ও তাঁর স্বামী ফিলিপ। কিন্তু, সেখানেও ব্রিটেনের জনগণের মনে প্রশ্ন জাগিয়ে গেলেন টেরেসা। এদিন স্বামীকে পাশে নিয়ে টেরেসা যখন জনগণকে উদ্দেশ্য করে হাত নাড়ছেন, সেই সময় তাঁর হাতের ব্রেসলেটটি নীল ব্লেজারের হাতার ভিতর থেকে উুঁকি মার ছিল। নজর ব্রেসলেটটির দিকে পড়তেই, অনেকেই হতবাক।

এখন প্রশ্ন উঠতে পারে একটা সাধারণ ব্রেসলেট নিয়ে ব্রিটেনের মানুষের এত কৌতুহল কেন? না। সেটি সাধারণ নয়। এই ব্রেসলেটটি তাঁদের কাছে খুবই পরিচিত এবং ঐতিহ্যবাহী। আসলে, এমনই একটি ব্রেসলেট ব্রিটেনের আরও এক প্রাক্তণ প্রধানমন্ত্রীর হাতে তাঁরা দেখেছেন। তিনি ছিলেন, ব্রিটেনের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী মার্গারেট থ্যাচার। ১৯৭৯ ব্রিটেনের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়ীত্বভার গ্রহণ করার দিন থ্যাচার এই ধরণের একটি ব্রেসলেট পরে ছিলেন। বহু গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্বের সঙ্গে সাক্ষাৎকার করতে গিয়ে বা বিদেশ সফরে তাঁকে ওই ব্রেসলেটটি পরতে দেখা গিয়েছে।তিনি এটিকে সৌভাগ্যের প্রতীক হিসাবে মনে করতেন। ৬০এর দশকে থ্যাচারের স্বামী ডেনিস অমূল্য পাথরখোচিত এই সোনার ব্রেসলেটটি তাঁকে উপহার দিয়ে ছিলেন।এরপরই তিনি প্রধানমন্ত্রী হন থ্যাচার।

১৯৮৪ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ানের প্রেসিডেন্ট মিখাইল গর্ভাচক বা ১৯৯০ সালে নেলসন মেডেলার সঙ্গে সাক্ষাৎ করার সময় তিনি এই ব্রেসলেটটি পরে ছিলেন।সম্প্রতি, থ্যাচারের এই বিখ্যাত ব্রেসলেটটি নিলামে উঠে ছিল। ব্রেসলেটটি আড়াই হাজার ইউরো দাম রাখা হলেও নিলামে এটি ৪০ হাজার ইউরোতে বিক্রি হয়। তবে, গ্রহকের নাম সামনে আসেনি। বেনামে কেউ সেটিকে কেনেন। কিন্তু বিদায়ের দিন টেরেসার হাতে হুবোহু একই ধরণের ব্রেসলেট ঝুলতে দেখে অবাক হয়ে যান অনেকেই। এখন প্রশ্ন উঠছে, টেরেসাই কী ম্যাগারেট থ্যাচারের সেই ঐতিহ্যবাহী ব্রেসলেটটি কিনে ছিলেন। আসলে, টেরেসার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সময় তাঁকে থ্যাচারের সঙ্গে তুলনা করা হত। তাঁকে এক প্রকার থ্যাচারের উত্তরসূরী হিসাবেও মনে করা হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only