বুধবার, ৩১ জুলাই, ২০১৯

হিজাব না পরে ছবি-ভিডিয়ো পোস্ট নয়, আইন ইরানে

হিজাব বা স্কার্ফ না পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি কিংবা ভিডিয়ো পোস্ট করা যাবে না। বিষয়টিকে দণ্ডনীয় অপরাধ বলে নির্দেশিকা জারি করেছে ইরানের রেভল্যুশনারী কোর্ট। তাকে উদ্ধৃত করে তেহরান প্রশাসন দেশবাসীকে সতর্ক করে বলেছে– বেপর্দা হয়ে নারীরা প্রকাশ্যে আসার ধৃষ্ঠতা দেখালে ইরানের ইসলামি ঐতিহ্য-সংস্কূতির লঙ্ঘন বলে গণ্য করা হবে। যার সাজায় সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাদণ্ড হতে পারে। কারণ হিজাব-স্কার্ফ ইত্যাদি হল নারীজাতীর ইজ্জত-আবরু রক্ষার্থে ইসলামি পোশাকবিধির অপরিহার্য অংশ। শালীন পোশাক মহিলাদের জন্য আবশ্যিক বলে বর্ণিত হয়েছে শরীয়াহ আইনে। কোনও মুসলিম নারী বেপর্দা হয়ে জীবদ্দশা অতিবাহিত করলে মৃত্যুর পর কিয়ামাত বা শেষবিচারের ময়দানে কঠিন প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হবে। এ জন্য মূলত সংশ্লিষ্ট মহিলার পিতা– স্বামী প্রমুখকে দায়ী করা হবে এবং তাঁদেরকে অভিভাবক হিসেবে আল্লাহর সামনে জবাবদিহি করতে হবে।
মাসিহ আলিনেজাদ
উল্লেখ্য, আমেরিকা প্রবাসী ইরানি বংশোদ্ভ(ত মুসলিম তরুণী মাসিহ আলিনেজাদ গত ৫ বছর ধরে ইরানের নারীদেরকে হিজাব– স্কার্ফ বা পর্দাপ্রথা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় আহ্বান জানাচ্ছেন। বিভিন্ন সোশ্যাল সাইটে হিজাব ও স্কার্ফ বর্জন করে ছবি পোস্ট করার জন্য ইরানের মেয়েদেরকে ২০০৫ সাল থেকে উসকানি বা ইন্ধন জুগিয়ে চলেছেন। উল্লেখ্য– পশ্চিমা খোলামেলা পোশাক ও সংস্কূতিতে বিশ্বাসী এই প্রবাসী তরুণীকে ইতিমধ্যেই আমেরিকার এজেন্ট বলে ঘোষণা করেছে ইরান সরকার।
চলতি বছরের প্রথমদিকে আলিনেজাদকে তাঁর দুঃসাহসের জন্য অভিনন্দন জানান মার্কিন বিদেশমন্ত্রী মাইক পম্পেও। পাশাপাশি ইরানের নারীজাতির স্বাধীনতা ও অধিকার ফিরিয়ে দিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নিজেকে উৎসর্গ করায় ভূয়সী প্রশংসা করে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার তাগিদও দেন পম্পেও। মঙ্গলবার আলিনেজাদ তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ১০ বছর কারাদণ্ডের হুমকি দিয়ে ইরানের মৌলবাদী সরকার আমাকে ভয় দেখাতে বা দমাতে পারবে না। এ সব করে দেশের মূল সমস্যা থেকে দৃষ্টি ঘোরানোর চেষ্টা করছেন প্রেসিডেন্ট রুহানি। আলিনেজাদ এও দাবি করেছেন– ইদানিংকালে ইরানের প্রচুর তরুণী হিজাব-স্কার্ফ খুলে ছবি– ভিডিয়ো তাঁকে পাঠাচ্ছেন। তাই নারীজাতিকে ইরান আর সেন্সর করে রাখতে পারবে না। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only