সোমবার, ২২ জুলাই, ২০১৯

বিতর্কিত মন্তব্য করে পিছু হঠলেন জম্মু-কাশ্মিরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক



পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক :  জম্মু-কাশ্মিরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক হত্যা সংক্রান্ত বিতর্কিত মন্তব্য করে অবশেষে পিছু হঠতে বাধ্য হয়েছেন। তার এসংক্রান্ত মন্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন রাজ্যটির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ওমর আব্দুল্লাহ। পাল্টা মন্তব্য করে ফের বিতর্কে জড়ান রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক। শেষমেশ আজ (সোমবার) রাজ্যপাল বলেছেন, রাগের বশে ওই মন্তব্য করে ফেলেছি।

গতকাল (রোববার) কারগিলে এক অনুষ্ঠানে জম্মু-কাশ্মিরের রাজ্যপাল   বলেন,  ‘যেসব যুবক বন্দুক হাতে তুলে নিয়েছে তারা আপনজনকেই খুন করছে। ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষী বা স্পেশাল পুলিশ কর্মকর্তারা (এসপিও)খুন হচ্ছেন। যারা কাশ্মিরের সব সম্পদ লুট করেছেন তাদের খুন করা উচিত।’

তাঁর এধরণের বিতর্কিত মন্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ওমর আব্দুল্লাহ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওমর বলেন, ‘এই ব্যক্তি দায়িত্বশীল সাংবিধানিক পদে রয়েছেন। কিন্তু তিনিই জঙ্গিদের বলছেন, যেসব নেতাকে দুর্নীতিগ্রস্ত বলে মনে হয় তাদের খুন করতে। দিল্লিতে এখন নিজের ভাবমূর্তি কী তা আগে ওঁর জানা উচিত। তার পরে না হয় অবৈধ হত্যার অনুমতি দেবেন।’

তার ওই মন্তব্যে বেজায় ক্ষুব্ধ হন রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক। পাল্টা জবাবে তিনি বলেন, ‘ওমর রাজনৈতিকভাবে নাবালক। সবকিছুতেই টুইট করেন।  ওর টুইটের প্রতিক্রিয়াগুলো দেখুন তাহলেই বুঝতে পারবেন। আর আমার মর্যাদা কতটা তারও পরিচয় পাবেন। সাধারণ মানুষকে ওর আর আমার সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করুন।’

এর পরেই, তিনি কার্যত নাটকীয় কায়দায় ঘোষণা দেন, ‘কারা দুর্নীতিগ্রস্ত, তা এই রাজ্য ছাড়ার আগে প্রমাণ করেই যাব।’

এসব ঘটনায় রাজনৈতিকঅঙ্গনে বিতর্ক সৃষ্টি হওয়ার মধ্যে অবশেষ আজ রাজ্যপাল রণভঙ্গ দিয়ে পিছু হঠে বলেন, ‘রাজ্যপাল হিসেবে আমার ওই মন্তব্য করা উচিত হয়নি। এটা আমার ব্যক্তিগত মতামত।’ অনেক রাজনৈতিক নেতা ও বড় আমলা দুর্নীতিতে ডুবে আছেন। এবং তা দেখে ক্ষোভ ও হতাশা থেকেই তিনি ওই মন্তব্য করেছেন বলেও রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক সাফাই দিয়েছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only