বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০১৯

ধোনির সাত নম্বর জার্সি নিয়ে বিতর্ক!

 ‘৭ নম্বর’ জার্সি মানেই মহেন্দ্র সিং ধোনি। আর ধোনির এই ‘৭ নম্বর’ জার্সি নিয়েই নতুন বিড়ম্বনায় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টে ৭ নম্বর জার্সি কে পাচ্ছেন তা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে।
আইসিসির নতুন নিয়ম অনুযায়ী টেস্টেও খেলোয়াড়দের জার্সিতে নাম ও নম্বর লেখা থাকবে। আগামী ১ আগস্ট ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া অ্যাশেজ টেস্ট দিয়ে শুরু হচ্ছে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। আর এই ম্যাচ দিয়েই টেস্ট ক্রিকেটের ১৪২ বছরের প্রথা ভেঙে জার্সির পেছনে থাকবে খেলোয়াড়দের নাম ও জার্সি নম্বর। আর আগামী ২২ আগস্ট  ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ অভিযান শুরু করবে ভারত।
২০১৪ সালে টেস্ট থেকে অবসরে গেছেন ‘ক্যাপ্টেন কুল’ মহেন্দ্র সিং ধোনি। তাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টে ৭ নম্বর জার্সি কে পাচ্ছেন তা নিয়ে আলোচনা চলছে। ক্রিকেটে জার্সি নম্বর তুলে রাখার কোনো অফিসিয়াল নিয়ম নেই।
তবে বেসরকারিভাবে জার্সি নম্বরকে তুলে রাখার ব্যবস্থা রয়েছে।
২০১৮ সালে ভারতের পেসার শার্দুল ঠাকুর শচীন তেন্ডুলকারের ব্যবহৃত ১০ নম্বর জার্সি পরে মাঠে নেমে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন। পরে বিসিসিআইয়ের সিদ্ধান্তে শচীন তেন্ডুলকারের সম্মানে ১০ নম্বর জার্সি বেসরকারি ভাবে তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বোর্ড। এবার সে অনুযায়ী ধোনির ৭ নম্বর জার্সিও তুলে রাখার কথা ভাবছে বিসিসিআই।
বোর্ডে এক কর্মকর্তা বলেন, ‘বিরাট ১৮ নম্বর জার্সি পরবে, রোহিত ৪৫। বেশির ভাগ খেলোয়াড়ই টেস্ট ও টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের জার্সি নম্বর ব্যবহার করবে। ধোনি টেস্ট ছেড়ে দেয়ায় ৭ নম্বর জার্সিটি খালি পড়ে আছে। তবে দলের বাকি খেলোয়াড়দের এ জার্সি ব্যবহারের সম্ভাবনা খুবই কম। ৭ নম্বর জার্সি বলতে লোকে ধোনিকে বোঝে। ওয়েস্ট ইন্ডিজে ওয়ানডে সিরিজ শেষ হলেই টেস্টের জার্সি এসে পৌঁছাবে।’


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only