বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯

জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিয়োয় পূর্বপরিকল্পিত অগ্নিসংযোগ, হত ৩০



পুর্বপরিকল্পিত  অগ্নিসংযোগে ভয়াবহু অগ্নিকান্ডে ঘটে গেল জাপানের একটি নামী অ্যানিমেশন স্টুডিও। বৃহস্পতিবার, এই অগ্নিসংযোগের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন স্থানীয়রা। পুলিশ মনে করছে,  ওই স্টুডিওতে আগুনবন্দি হয়ে কমপক্ষে ৩০জনের মৃত্যু হয়েছে। ইতিমধ্যে ২৩ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে পুলিশ। কিন্তু বাকিদের মৃত্যু সম্পর্কে সঠিক কোনও প্রমাণ না মেলায় পুলিশ কিছু নিশ্চিত ভাবে বলতে পারেনি।
জাপানের কোটো শহরে অবস্থিত ওই অ্যানিমেশন স্টুডিয়োর অগ্নিসংযোগের  ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই আগুণ ছড়িয়ে পড়ে। সেই সময় প্রায় ৭০জন সেখানে উপস্থিত ছিলেন। দমকলকর্মী ও বিপর্যয় মোকাবিলা কর্মীদের সহায়তায় অগ্নিনির্বাপনের ব্যবস্থা করা হয়। একই সঙ্গে সেখানে আটকে থাকা মানুষদেরও উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, অগ্নিসংযোগের সঙ্গে জড়িত সন্দেহ একজনকে গ্রেফতার করেছে। তার অবস্থায় আশঙ্কাজনক। পুলিশ বলছে এই অগ্নি সংযোগের ঘটনা পূর্বপরিকল্পিত।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ৪১ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি নাকি অগ্নিসংযোগ করার আগে দাহ্য পদার্থ গ্যাসোলিন ছড়িয়ে দেয় স্টুডিয়োর অন্দরে। এরপর 'তোমরা মর' বলে চিৎকার করে অগ্নিসংযোগ করে। তাতেই সে আহত হয়। ক্ষতিগ্রস্থ সরঞ্জাম সরিয়ে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার চিকিৎসা চলছে।

প্রথম দুটি তলের আগুন নিয়ন্ত্রণে এলে সেখান থেকে ২৩ জনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। বলা হচ্ছে, ধোঁয়া ও আতঙ্কে ফুসফুস ও হৃদযন্ত্র বিকল হয়েই তাদের মৃত্যু হয়েছে। কেনও ওই ব্যক্তি স্টুডিয়ো অগ্নিসংযোগ ঘটালেন তা নিয়ে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। ওই ব্যক্তি সুস্থবোধ করলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হবে।
এদিকে ঘটনায় ৩৫ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০.৩৫ মিনিট নাগান ওই ভবন থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখা যায়।এর পর নিমেষের মধ্যে ভয়াবহ আগুণের গ্রাসে চলে যায় গোটা স্টুডিয়ো। আসপাশ পুরো কালো ধোঁয়ায় অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে যায়। প্রতিবেশী ভবনগুলিকে মানুষরা আতঙ্কে বাইরে বেড়িয়ে আসেন।ঘটনাস্থলে যায় দমকলের ৩৫টি ইঞ্জিন।
এই ঘটনায় আহত ও নিহতদের প্রতি দুঃখপ্রকাশ করে একটি টুইটবার্তা দিয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।তিনি লিখেছেন, আমি নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করছি এবং তাদের পরিবারের প্রতি সহর্মমী। উল্লেখ্য, ১৯৮১ সালে কিয়োটো অ্যানিমেশন স্টুডিয়োটি পথচলা শুরু হয়। উন্নতমানের অ্যানিমেশন এই স্টুডিয়োয় করা হত।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only