শুক্রবার, ২৬ জুলাই, ২০১৯

কি ভাবে চিনে এডিস মশা নিমূর্ল হল? জানুন


মাত্র দুই বছরে গুয়াংঝুর শহরের দুটি দ্বীপ থেকে এডিস মশা নির্মূল করেছে চিন। সম্প্রতি দ্য নেচার জার্নালে এই সাফল্যের কথা বর্ণনা করা হয়েছে। গবেষকরা জানিয়েছেন, দুটি বিদ্যমান পদ্ধতির সমন্বয়ে তারা সেখানে এশিয়ান টাইগার নামে পরিচিত এই মশার পরিমাণ ৯৪ শতাংশ কমিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন।
জানা গিয়েছে, বিগত ২০ বছর ধরে তারা এই  রোগবাহী মশা বংশ নিয়ন্ত্রণের জন্য কাজ চালিয়ে গিয়েছেন। এতে রোগের প্রকোপও কমে আসে। জর্জটাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের মশার বাস্তুসংস্থান বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পিটার আর্মব্রাস্টার বলেন, যে দুটি কৌশল মশা নিয়ন্ত্রণে কাজে লাগানো হয়ে ছিল তার প্রথমটি হল, বিকিরণের মাধ্যমে মশাকে নির্গত করা, দুই ওলবাখিয়া প্রজাতির ব্যাকটেরিয়া স্ট্রেনের মাধ্যমে ডিম থেকে মশার উৎপাদ রোধ করা। ল্যাবেরেটারিতে একসঙ্গে এই দুই পদ্ধতি প্রয়োগ করা হলে তখন তা মশা নিধনে আরও বেশি কার্যকর হয়ে ওঠে।
বিজ্ঞানীরা বলছে বংশবৃদ্ধি শতভাগ নিয়ন্ত্রণের জন্য একক কোনও কৌশল নেই। কয়েকটি প্রক্রিয়া অনুসরণ করে কার্যকর ফল পাওয়া সম্ভব। তাদের এই পদ্ধতি রোগবাহী মশার বংশবিস্তারে নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি কার্যকর হয়েছে।গত ৪০ বছরে রক্তপায়ী এ মশা এশিয়া থেকে অ্যান্টার্কটিকা বাদে পৃথিবীর অন্যান্য মহাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। আকারে ক্ষুদ্র মশাগুলি মানব শরীরে ভয়ঙ্কর রোগ ছড়ায়। এই রোগের খুব বেশি প্রতিষেধক পাওয়া যায়নি এখনও পর্যন্ত।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only