মঙ্গলবার, ৯ জুলাই, ২০১৯

৩৩ হাজার বছর আগে ঘটা খুনের কিনারা!

৩৩ হাজার বছর আগে খুনের কিনারা করল বিজ্ঞানীরা। নিয়ানডারথাল গোত্রে এক মানুয়ের খুলি নিয়ে পরীক্ষা চালিয়ে এবিষয়ে সিদ্ধান্তে এসছেন রোমানিয়ার একদল গবেষক। এটি সবচেয়ে প্রাচীনতম খুনের ঘটনার মধ্যে অন্যতম।

১৯৪১ সালে রোমানিয়ার ট্রান্সিলভেনিয়ার একটি খনি থেকে এই খুলিটি উদ্ধার করেন শ্রমিকরা। মাথার খুলিটি পাওয়া গেলেও দেহে বাকি হারগর খুঁজে পাওয়া যায়নি।সেখানে ভল্লুকের কিছু জীবাশ্মও পাওয়া গিয়েছিল।বিজ্ঞানীদের হাতে খুলি আসার পর, তারা লক্ষ করে খুলিটি মাঝ খানে দুটি গভীর ক্ষত রয়েছে।তাদের মধ্যে জিজ্ঞাস্য শুরু হয় খুলিটি আগে থেকেই এমন ছিল, দীর্ঘদিন খনিতে থাকতে থাকতে তার এমন দশা হয়েছে। পরে বিজ্ঞানীরা বুঝতে পারেন আসলে খুলিটি আগে থেকেই এমনটি।

দীর্ঘ দিন বিজ্ঞানীরা এই রহস্যময় খুলিটি নিয়ে গবেষণা করে প্রচ্ছন্যে থাকা ঘটনাটি সম্পর্কে অনুসন্ধান চালিয়ে গিয়েছে। এত দিনের পর তারা জানতে পেরেছেন, ওই খুলিটি আসলে একজন প্রস্তর যুগের  মানুষের। সে পুরুষ ছিল। তাকে কোন বামহাতী মানুষের হাতে খুন হতে হয়ে ছিল। কোনও এক ভোঁতা অস্ত্র দিয়ে তার মাথা দুবার আঘাত করা হয়। তাতে ওই মানুষের মাথায় আঘাত লাগে। তাতে তার মৃত্যু হয়েছে। নির্যাতনের সময় তাকে সামনে থেকে প্রহার করা হয়েছিল। ব্যাট জাতীয় বস্তু দিয়ে এই খুন হয়।

জার্মানির টিবিজেন বিশ্ববিদ্যালের গবেষক ক্যাটেরিনা হার্ভাতি জানিয়েছেন, মধ্য থেকে নব্য প্রস্তরযুগে প্রবেশের সময় প্রাচীন এই খুনের ঘটনাটি ঘটে। প্রস্তর যুগের মানুষরা সৃজনশীন ও সংস্কৃতিমনা হলে, তখন গোষ্ঠীতে গোষ্ঠীতে সংঘর্ষ হত। তারই একটি ঘটনা বয়ে বেড়াচ্ছে এই মাথার খুলি।জানা গিয়েছে নিয়ানডারথান গোত্রে এক মানুষের খুলি এটি।

উল্লেখ্য, খ্রিষ্টান ধর্মগ্রন্থ বাইবেল অনুযায়ী প্রথম খুনের ঘটনাটি ঘটে দুই ভাইয়ের মধ্যে।যেখানে আবেল খুন করেছিল কেন। কিন্তু স্পেনের বিজ্ঞানীরা দাবি করে ৪ লক্ষ ৩০ হাজার বছর আগে পৃথিবীতে প্রথম মানুষ খুনে ঘটনা ঘটে ছিল। তবে তার অকাট্য প্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only