বৃহস্পতিবার, ১ আগস্ট, ২০১৯

জম্মু-কাশ্মির : প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করলেন ন্যাশনাল কনফারেন্সের প্রতিনিধিরা


পুবের কলম ডিজিটাল ডেস্ক :  জম্মু-কাশ্মিরের ন্যাশনাল কনফারেন্সের এক প্রতিনিধিদল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাত করে রাজ্যের পরিস্থিতি সম্পর্কে তাঁকে অবগত করেছেন। আজ (বৃহস্পতিবার) সেরাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ, ওমর আব্দুল্লাহ ও হাসনাইন মাসুদী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক করেন। এসময় তাদের মধ্যে কমপক্ষে ২০ মিনিট ধরে রাজ্যের বিভিন্ন বিষয়ে কথা হয়।

এনিয়ে ওমর আব্দুল্লাহ বলেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি, রাজ্যটিতে যেন এমন কোনও পদক্ষেপ না নেওয়া হয় যাতে সেখানকার পরিস্থিতি খারাপ হয়। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার সময় ৩৫-এ ও ৩৭০ ধারার বিষয়টিও উঠে আসে। এর পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মিরে বিধানসভা নির্বাচন করার দাবি জানানো হয়েছে। তাদের মধ্যে খুব আন্তরিক ও সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে বৈঠক  হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ওমর আব্দুল্লাহ।

কেন্দ্রীয় সরকার সম্প্রতি রাজ্যটিতে অতিরিক্ত দশ হাজার আধাসামরিক বাহিনীর জওয়ান মোতায়েনের নির্দেশ দেওয়ায় সেখানকার স্থায়ী বাসিন্দাদের জন্য বিশেষ সুবিধা সম্বলিত ৩৫-এ ধারায় গরমিল করতে পারে অথবা ওই ধারার বিলোপ ঘটাতে পারে বলে সেখানে আশঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে। 

এপ্রসঙ্গে জম্মু-কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি   হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, আমি কেন্দ্রীয় সরকারকে বলতে চাই যে, ৩৫-এ ধারা গরমিল করার চেষ্টা বারুদে আগুন ধরানোর মতো হবে। যদি কোনো হাত ৩৫-এ ধারা স্পর্শ করার চেষ্টা করে তবে কেবল সেই হাতই নয়, পুরো শরীরও পুড়ে ছাই হয়ে যাবে।

সেখানকার স্থানীয় রাজনৈতিক দলের মধ্যে এনিয়ে আশঙ্কা ও উদ্বেগ জোরালো হওয়ায় অবশেষে রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক গতকাল (বুধবার) সাফাই দিয়ে ওই ধারা তুলে দেয়ার পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছেন।

রাজ্যপাল বলেন, আমি আপনাদের আশ্বাস দিচ্ছি যে এই মুহুর্তে ৩৫-এ ধারাটি বাতিল করার কোনও স্তরের কোনও পরিকল্পনা নেই। আপনারা যা শুনছেন তা হল গুজব যা স্বার্থান্বেষী কিছু লোক ছড়িয়ে দিচ্ছে বলেও রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক মন্তব্য করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only