বুধবার, ৭ আগস্ট, ২০১৯

সুষমার প্রয়াণে শোকবার্তা বিশ্বের রাষ্ট্রনেতাদের

প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রীর প্রয়াণে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন বিদেশর একাধিক রাষ্ট্রনেতা। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ
হাসিনা থেকে শুরু করে ইরান– আফগানিস্তান– বাহারাইন– রাশিয়া– ফ্রান্স– ইজরায়েল সহ একাধিক দেশের রাষ্ট্রনেতারা শোকজ্ঞাপন করেছেন। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘উনি (সুষমা স্বরাজ) বাংলাদেশের খুব ভাল বন্ধু ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে বাংলাদেশ এক ভাল বন্ধুকে হারাল। দুই দেশের সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশ তাঁর অবদানকে সবসময় স্মরণ করবে।’ ইরানের বিদেশমন্ত্রী জাভেদ জারিফ সুষমার সঙ্গে তাঁর ‘ফলপ্রসু’ আলোচনার কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘প্রাক্তন বিদেশন্ত্রী সুষমা স্বরাজের প্রয়াণে আমার গভীর বেদনা রইল ভারত সরকার ও ভারতীয়দের প্রতি। যখন তিনি মন্ত্রকের দায়িত্বে ছিলেন তাঁর সঙ্গে আমার অনেক ফলপ্রসু ও প্রয়োজনীয় আলোচনা হয়েছে। তাঁর আকস্মিক মৃতু্যতে মর্মাহত। তাঁর আত্মার চিরশান্তি কামনা করি।’ বাহারাইনের বিদেশমন্ত্রী খালিদ বিন আহমেদ আল্ খালিফা বলেন, তিনি সুষমাকে ‘দিদি’ বলে সম্বোধন করতেন আর সুষমা তাঁকে সবসময় ‘ভাই’ বলে সম্বোধন করতেন। সে কথা উল্লেখ করে খালিফা বলেন, ‘তিনি (সুষমা) আর আমাদের সঙ্গে নেই। ‘আমার প্রিয় দিদি চিরশান্তিতে থাকুন। ভারত ও বাহারাইন আপনার অভাব বোধ করবে।’
সুষমাকে ‘বহেনজি’ বলে সম্বোধন করে আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই বলেন, ‘বহেনজি সুষমা স্বরাজের মৃত্যুর খবরে গভীরভাগে শোকাহত। একজন বড় মাপের নেতা– এক সুদক্ষ বক্তা ও জনতার কাছের মানুষ ছিলেন। তাঁর (সুষমার) পরিবার– বন্ধু ও ভারতীয়দের প্রতি আমার সমবেদনা রইল।’ আফগানিস্তানের বিদেশমন্ত্রী সালাহউদ্দিন রাব্বানি বলেন– ‘সিনিয়র বিজেপি নেতা ও প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের অকাল প্রয়াণের খবর শুনে আমি মর্মাহত। বিশিষ্ট জননেতা যিনি নিজের দেশকে সম্মান ও সংকল্পের সঙ্গে উপস্থাপন করেছিলেন তাঁর প্রয়াণে আমার গভীর সমবেদনা রইল ভারতের জনতা ও সরকারের প্রতি। রাশিয়ার বিদেশমন্ত্রক থেকে টু্যইট করা হয়েছে– ‘বন্ধু দেশের প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রীর প্রয়াণে ভারতের জনগণের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাই।’ ভারতে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার জিগলের বলেন– সুষমা ছিলেন ভারতের এক অন্যতম শ্রদ্ধেয় নেত্রী– দেশসেবায় যিনি এক চিরস্মরণীয় আত্মনিয়োগের দৃষ্টান্ত উপস্থাপন করেছিলেন এবং ভারত-ফ্রান্সের সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছিলেন। রাষ্ট্রসঙ্ঘের জেনারেল অ্যাসেম্বলির প্রেসিডেন্ট মারিয়া ফার্নান্ডা স্পিনোসা বলেন– এক অসাধারণ নেত্রী ও মানুষের প্রয়াণের খবরে শোকাহত। জনসেবায় তিনি নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। ভারত সফরে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করার সম্মান পেয়েছিলাম। তাঁর কথা সবসময় স্মরণে থাকবে।’ ভারতে নিযুক্ত ইজরায়েসের রাষ্ট্রদূত রন মালকা সরাসরি সুষমার বাসভবনে গিয়ে তাঁর মৃতদেহের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে আসেন।      

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only