শনিবার, ১০ আগস্ট, ২০১৯

রাশিয়ার পরীক্ষাকেন্দ্রে রকেট বিস্ফোরণ, হত ৫


রাশিয়ার নৌ-বাহিনীর একটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাকেন্দ্রে রকেট বিস্ফোরণের ঘটনায় ৫ জন নিহত হয়েছে।আহত হয়েছেন আরও তিনজন।রুশ কর্মকর্তারা ঘটনার খবর নিশ্চিত করেছেন।

বৃহস্পতিবার নিওনক্সার নামে পরীক্ষাকেন্দ্রেটিতে লিকুইড প্রপেলেন্ট রকেট ইঞ্জিনের পরীক্ষা চালানো হচ্ছিল, সেই সময় হঠাৎই ওই দুর্ঘটনা ঘটে যায় বলে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক প্রতিষ্ঠান রোসাটম একথা জানিয়েছে। জানা গিয়েছে, আহত তিন কর্মীর শরীরের বেশিরভাগ অংশই পুড়ে গিয়েছে।জানা গিয়েছে, ঘটনাস্থলে দুজনের মৃত্যু হয়। পড়ে আরও একজন মারা যান।

রোসাটম জানিয়েছে, দুর্ঘটনার আগে তাদের ইঞ্জিনিয়ার ও প্রযুক্তি দলের সদস্যরা রকেট পরিচালনার ব্যবস্থার জন্য 'আইসোটোপ পাওয়ার সোর্স' নিয়ে কাজ করছিলেন। জানা গিয়েছে, এই পরীক্ষাকেন্দ্রে আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপনাস্ত্র, ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ও বিমানবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রসহ রুশ নৌ-বাহিনীর ব্যবহৃত প্রায় সব ক্ষেপণাস্ত্রই পরীক্ষা করা হয়ে থাকে।

পরীক্ষা কেন্দ্রটির ৪৭ কিলোমিটার দূরের শহর সেভেরোদবিঙ্ক  আরখাঙ্গেলস্কতে বিস্ফোরণের তেজস্ক্রিতা নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। দুর্ঘটনার পর ৪০ মিনিট পর্যন্ত তেজস্ক্রিয়তা মাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি ছিল। তাই, এর প্রভাব থেকে বাঁচতে স্থানীয় মানুষের মধ্যে আয়োডিন কেনার হিড়িক পড়ে যায়।কারণ্ আয়োডিন সেবনের মাধ্যমে তেজস্ক্রিয়া প্রভাব কমে। 

তবে  বায়ুমণ্ডলে ক্ষতিকর কোনো রাসায়নিক না ছড়ানোয় স্বল্প সময়ের এ বাড়তি মাত্রা শহরগুলির বাসিন্দাদের জন্য ক্ষতিকর হবে না বলে আশ্বস্ত করেছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। এ দিয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী দুটি দুর্ঘটনার অভিজ্ঞতা করল।গত সোমবার সাইবেরিয়ার একটি গোলাবারুদ মজুদ রাখার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় একজন নিহত হয়ে ছিল আহত হয়ে ছিল আটজন। এতে একটি স্কুল ও কিন্ডারগার্টেন ক্ষতিগ্রস্ত হয়।সেখানে থেকে সাড়ে নয় হাজার বাসিন্দাকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only