বুধবার, ২৮ আগস্ট, ২০১৯

আমি খুন শুরু করলে বংশ লোপ করে দেব, হুমকি দিলীপের


পুবের কলম প্রতিবেদক­: বিধায়ক থেকে সাংসদ হয়েছেন, দায়িত্ব বেড়েছে অনেকটাই, কিন্তু কু-কথা বলায় বিরাম নেই রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের। সোমবারই পূর্ব মেদিনীপুরের মেচেদায় হুমকি দিয়েছিলেন, ‘আমি খুনোখুনি শুরু করলে বংশ লোপ করে দেব।’ মেচেদায় যেখানে শেষ করেছিলেন মঙ্গলবার কলকাতার আইসিসিআরে দলীয় সভায় যেন সেখান  থেকেই শুরু করলেন বঙ্গ বিজেপির প্রধান সেনাপতি। সংবাদমাধ্যমের সামনেই তৃণমূলের উদ্দেশে হুমকিবাণ ছুড়ে বলেন, ‘হিংসা বন্ধ করার জন্য হিংসার প্রয়োজন আছে। তা নাহলে আমাদের অস্তিত্ব থাকবে না। কর্মীদের স্পষ্টভাবে বলছি, মার খেয়ে কান্নাকাটি করে আমার কাছে আসবেন না। পাল্টা মার দিন, মেরে শুইয়ে ফেলুন। প্রতিশোধ না নিয়ে আসবেন না। এখন প্রতিশোধ শুরু করব।’ দিলীপের এমন উসকানিমূলক মন্তব্য নিয়ে ইতিমধ্যেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে। যদিও তাতে আমলই দিচ্ছেন না বিজেপি রাজ্য সভাপতি। 
পাশাপাশি দলের আসন্ন সাংগঠনিক নির্বাচন নিয়ে দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব যাতে প্রকাশ্যে না আসে, তার জন্যও নেতাকর্মীদের সতর্ক করে দিয়েছে দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়, ‘দলের কলেবর বেড়েছে। মানুষ দলের উপরে আস্থা রেখেছেন বলেই লোকসভা ভোটে ১৮ আসনে বিজয়ী হয়েছি। সাংগঠনিক ভোট নিয়ে এমন কিছু করবেন না, যাতে সাধারণ মানুষের কাছে দলের ভাবমূর্তি কালিমালিপ্ত হয়, দলের সম্মান নষ্ট হয়।’ সাংগঠনিক নির্বাচন হলে দলের অন্দরের লড়াই প্রকাশ হয়ে যেতে পারে এমন আশঙ্কায় সহমতের ভিত্তিতে বুথ কমিটি ও মণ্ডল সভাপতি বেছে নেওয়ারও নিদান দিয়েছেন দিলীপ। তাঁর কথায়, ‘সাংগঠনিক ভোট নিয়ে মারামারি করবেন না। সহমতের ভিত্তিতেই সবটা হবে। অনেকেই ভাবতে পারেন, তিন বছর সাংগঠনিক দায়িত্বে থেকে সংগঠনের অনেকটা প্রসার ঘটিয়েছেন। সংগঠনকে শক্তিশালী  করেছেন। ফলে তিনিই নেতৃত্ব দেওয়ার যোগ্য। কিন্তু তিনি ভাবলেও দল যে সিদ্ধান্ত নেবে, তাই চূড়ান্ত। মনে রাূবেন দল একটা পরিবারের মতো। প্রত্যেক সদস্য যেমন পরিবারের একজনের কথা মেনে চলে, এক্ষেত্রেও আপনাদের তাই করতে হবে।’ লোকসভায় যাঁরা বিজেপিকে ভোট দিয়েছেন, তাঁদের সবার কাছে যে সদস্য সংগ্রহ অভিযান কর্মসূচি নিয়ে পৌঁছনো যায়নি তাও স্বীকার করে নেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘প্রচুর মানুষ আছেন যাঁরা আমাদের ভোট দিয়েছেন, কিন্তু তাঁদের কাছে পৌঁছনো যায়নি। প্রত্যেকের কাছেই পৌঁছতে হবে। সেই লক্ষ্যে ঝাঁপাতে হবে সবাইকে।’ এদিনই বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে মামলা দায়ের করল কোলাঘাট থানার পুলিশ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only