বুধবার, ৭ আগস্ট, ২০১৯

বাণিজ্য সম্পর্ক স্থগিত করে ভারতের দূতকে ফেরত পাঠাচ্ছে পাকিস্তান

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত-পাক সম্পর্ক আরও খারাপের দিকে এগোচ্ছে। বুধবার পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা কমিটি-এনএসসি ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়াও দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক শিথিল করার সিদ্ধান্ত নেয়। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এই বৈঠকের সভাপতিত্ব করেন। এছাড়া বিষয়টি রাষ্ট্রসংঘের কাছে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

এই বৈঠকের পর প্রকাশিত এক বিবৃতিতে জানানো হয়, ভারত সরকারের বর্বর, বর্ণবাদী, মানবাধিকার লঙ্ঘন প্রকাশিত করে দেওয়ার জন্য সকল কূটনৈতিক পথ অবলম্বনের নির্দেশ দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বৈঠকে ভারতে রাষ্ট্রদূতকে বহিঙ্কার এবং পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে দিল্লি থেকে ডেকে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।পাক বিদেশমন্ত্রী কুরেশি বলেছেন, আমাদের দূতরা আর নয়া দিল্লি থাকছেন না। আর আমাদের এখানে থাকা তাদের কাউন্টারপার্টদের ভারতে ফেরত পাঠানো ব্যবস্থা করছি।
ভারতের বিরুদ্ধে নেওয়া পাকিস্তানের পদক্ষেপ গুলি হল-

১- ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক হ্রাস।
২- দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য সম্পর্ক স্থগিত।
৩- ভারতের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় চুক্তিগুলোর পর্যালোচনা করা হবে।
৪- অধিকৃত কাশ্মীরের বিষয়টি রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে উপস্থাপন করা হবে।
৫- এ ছাড়া আগামী ১৪ আগস্ট কাশ্মীরিদের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে আসন্ন স্বাধীনতা দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only