রবিবার, ১১ আগস্ট, ২০১৯

রাজ্যের সাফল্য ভাগ করে নিতে গিয়েও কেন্দ্রকে বিঁধলেন মমতা


পুবের কলম প্রতিবেদক : অর্থনৈতিক বৃদ্ধিতে দেশে প্রথম পশ্চিমবঙ্গ। সােশ্যাল সাইটে এই বিষয়ে রাজ্যবাসীকে শুভেচ্ছা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । রবিবার তিনি সােশ্যালসাইট ফেসবুকে লিখেছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের দেওয়া তথ্য অনুয়ায়ী, ২০১৮ -১৯ অর্থবর্ষে আমাদের অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হার ১২.৫৮ শতাংশ, যা এই মুহূর্তে দেশে সর্বাধিক । এদিন এই আনন্দের খবর তিনি রাজ্যবাসীর সঙ্গেও ভাগ করে নিয়েছেন । উল্লেখ্য , শনিবারই রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই খবর রাজ্যবাসীকে জানিয়েছিলেন। একইসঙ্গে তিনি অভিযােগও করেন, দেশ যেখানে তীব্র অর্থনৈতিক মন্দার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে , সেখানে কেন্দ্রীয় সরকার পঙ্গু নীতি নিয়ে চলছে ।
এ দিন মুখ্যমন্ত্রীর মুখেও একই কথার পুনরাবৃত্তি শােনা গিয়েছে। এ বিষয়ে ফেসবুকে তিনি লেখেন , অর্থনৈতিক মন্দা এবং কেন্দ্রের পঙ্গু নীতির সঙ্গে চলেও সার্বিকভাবে অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হার বাড়িয়ে নিতে আমরা সামর্থ হয়েছি । একইসঙ্গে বেকারত্বের হার যখন গােটা দেশে সর্বাধিক, সেখানে রাজ্য সরকার পর্যাপ্ত কর্ম সংস্থানের সুযােগ তৈরিতে সামর্থ হয়েছে ।
এ দিন এই  পােস্টে মুখ্যমন্ত্রী সবচেয়ে বেশি সবর হয়েছেন বেকারত্ব নিয়ে । বিশেষ করে তিনি কেন্দ্রের বিলগ্নিকরণ নীতিরও সমালোচনা করেছেন। তিনি লিখেছেন , কেন্দ্রীয় সরকার অর্ডিন্যাস ফ্যাক্টারি বাের্ড থেকে বিএসএনএল , এয়ার ইন্ডিয়া থেকে রেলওয়ে , চিত্তরঞ্জন লােকমােটিভ থেকে অ্যালয় স্টিল প্ল্যান্ট দুর্গাপুরের মতাে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বিলগ্নিকরনের পথে হাঁটছে — যার কারণে প্রায় লক্ষাধিক মানুষকে কাজ হারাতে হয়েছে।
এখানেই শেষ নয় তিনি চামড়া ও গাড়ি শিল্পে প্রায় তিন লাখের বেশি মানুষের কাজ হারানাের প্রসঙ্গও এখানে তুলেছেন তিনি । মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন , যুব সম্প্রদায়ের জন্য কর্ম সংস্থানের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল মােদি সরকার । কিন্তু এই সরকারের শাসনে সময় যত এগিয়েছে , ততই মানুষ কর্মহীন হচ্ছে । এর থেকে বড় দুঃখের বিষয় কিছু হতে পারে না । বিনিয়ােগ নিয়েও এদিন কেন্দ্রকে বিঁধেছেন মমতা । তাঁর ভাষায় , ২০১৯ - ২০ সালের প্রথম ত্রৈমাসিকে নতুন প্রকল্পে লগ্নির পরিমাণ গত ১৫ বছরে সর্বনিম্ন । নতুন প্রকল্প ঘােষণা শেষ তিন মাসে কমেছে ৮১ শতাংশ । ২০১৮ সালের তুলনায় বিচার করলে তা কমছে ৮৭ শতাংশ ।
 তাঁর আরও অভিযােগ , এই মুহূর্তে ১৩ লক্ষ কোটি টাকা বিনিয়ােগ প্রকল্পের বাস্তবায়ন আটকে । ১৯৯৫ সালের পরে যা সর্বোচ্চ । ২০১৭ - ১৮ - র তুলনায় ২০১৮ - ১৯ বিদেশি বিনিয়ােগের অঙ্ক কমেছে ১ . ০৯ শতাংশ । তিনি আরও বলেন , প্রত্যেকেই বুঝতে পারছেন এই মুহূর্তে দেশ কী অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে । মুখ্যমন্ত্রীর মতে, এই সরকারের অ্যাজেন্ডা উন্নয়ন এবং অর্থনীতি থেকে সরে গিয়ে শুধু রাজনীতি হয়ে দাঁড়িয়েছে । ফলে এখন দেশে শুধুই রাজনীতি চলছে ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only