শুক্রবার, ৯ আগস্ট, ২০১৯

রোজ শুনানির আপত্তি খারিজ শীর্ষকোর্টের

 নিয়মিত শুনানির নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। শুক্রবার ছিল এই শুনানির ৪র্থ দিন। সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের হয়ে শীর্ষকোর্টে সওয়াল করছেন বর্ষীয়ান আইনজীবী রাজিব ধাওয়ান। এদিন সুপ্রিম কোর্টে তিনি বলেন– নিয়মিত শুনানি বন্ধ করা হোক। যুক্তি হিসেবে তিনি বলেন– এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এই মামলা নিয়ে একেবারেই তাড়াহুড়ো করা যায় না। এইভাবে রোজ মামলা হলে আমরা যথাযথ প্রস্তুতি নিতে পারছি না। যদি প্রতিদিন মামলা হয় তাহলে আদালতকে ঠিক করে মামলাটি ব্রিফ করতে পারছি না। এটা ঠিক নয়। এরকম গুরুত্বপূর্ণ মামলায় তাড়াহুড়ো করা ঠিক হবে না। একইসঙ্গে তিনি বলেন– প্রতিদিন শুনানি ‘অমানবিক’। একইসঙ্গে ‘বাস্তবে অসম্ভব’। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বে সাংবিধানিক বেঞ্চে চলছে মামলার শুনানি। এদিন আইনজীবী ধাওয়ান বলেন– ‘আমি নিশ্চিত বিচারপতি ডঃ চন্দ্রচূড় ছাড়া হাইকোর্টের সম্পূর্ণ রায় পড়ে দেখেননি কেউই। তবে আইনজীবী ধাওয়ানের মন্তব্যে কর্ণপাত করেনি সুপ্রিম কোর্ট। আদালত বুঝিয়ে দিয়েছে যেভাবে শুনানি চলছে সেভাবেই চলবে। ২০১০-এ এলাহাবাদ হাইকোর্ট বাবরি-রামমন্দিরের বিতর্কিত ২২.৭ একর জমি তিনটি সমানভাগে ভাগের নির্দেশ দিয়েছিল। যার মধ্যে একটি ভাগ পেয়েছিল সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড– একভাগ পেয়েছিল রামলালা ও বাকি একভাগ পেয়েছিল নির্মহী আখড়া। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only