বৃহস্পতিবার, ১ আগস্ট, ২০১৯

দিদিকে বলো কর্মসূচির মাঝে, দাদাকে বলো!




দেবশ্রী মজুমদার, ইলাম বাজার, ০১ অগাষ্ট: মুখ‍্যমন্ত্রীর  নির্দেশে দিদিকে বলো কর্মসূচির মাঝে, দাদাকে বলো, কর্মসূচি দিয়ে জন সংযোগ বাড়ানোর কাজ শুরু হল চৌপাহারীর জঙ্গলের আদিবাসী গ্রামে। যাঁরা অভিযোগ করবেন, তাঁরা কথা বলতে পারেন না। তাঁদের হয়ে  অভিযোগ জানালেন দাদা অর্থাৎ বিধায়ক তথা মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহাকে পরিবারের বয়স্ক মহিলা পাপু কিসকু। বৃহস্পতিবার বোলপুর বিধান সভার বিধায়ক তথা রাজ্যের মৎস মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা কাজ শুরু করেন তার বিধান সভার ইলাম বাজারের চৌপাহারী   জঙ্গল মহল এলাকায় ফুলবাগান আদিবাসী গ্রামে।  আদিবাসী মানুষ জনদের সাথে সরাসরি কথা বলেন ও মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সরাসরি অভিযোগ জানার ফোন নাম্বার তুলে দেন।
এই কর্মসূচির মাঝে পাকু কিসকু নামে এক বয়স্ক মহিলা দাদাকে জানান, তাঁর ছেলে ও বৌমা কথা বলতে পারেন না। কিন্তু কোন সরকারি সাহায্য পান না। মঙ্গলা মুর্মু দৈনিক মজদুর, তাঁর কোন রেশন কার্ড নেই। তাই পান না দু'টাকা কেজি চাল বা অন্য সুবিধা। সুচিত্রা হেমব্রম নামে এক আদিবাসী নৃত্য শিল্পীর লোক প্রসার শিল্পী হিসেবে নেই কোন পরিচয় পত্র। তাই সরকারি সাহায্য পাওয়ার কোন প্রশ্ন ওঠেনা। এভাবে অনেকেই জানালেন নিজেদের সমস‍্যার কথা। দলীয় পরিকল্পনা অনুযায়ী,  একশ দিনের মধ্যে দশ হাজার গ্রাম ও শহর এলাকায় দলীয় নেতা কর্মীদের পৌঁছাতে হবে। গ্রামে রাত্রি যাপন ও গ্রামবাসীদের সাথে খাবার ভাগ করে খাওয়া তার মধ্যে অন্যতম।
এভাবেই জেলায় জেলায় বিধায়,  নেতা, মন্ত্রী সকলেই তাদের এলাকাতে গিয়ে মানুষের সাথে যোগাযোগ নিবিড় করার কাজ শুরু করেছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only