বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯

উধোর ঘাড়ে বুধোর পিণ্ডি! ইন্দিরা আবাস যোজনায় এক আজাদের টাকা তুলল আরেক আজাদ!

দেবশ্রী মজুমদার, রামপুরহাট, ২২ আগস্ট: একেই বলে উধোর ঘাড়ে বুধোর পিণ্ডি! একজনের নামে নির্ধারিত ইন্দিরা আবাস যোজনার বাড়ির টাকা তুলল অন্যজন। অভিযোগ পাওয়ার পর বিডিও টাকা ফেরতের জন্য চিঠি পাঠালেও টাকা ফেরত দেয়নি অভিযুক্ত। ইতিমধ্যে বিডিও পরিবর্তন হয়েছেন ব্লকে। ফলে যে তিমিরে উপভোক্তা ছিলেন সেই তিমিরেই পড়ে আছেন। তবে বিষয়টি নজরে আসার পড়ার বর্তমান বিডিও নিতীশ ভাস্কর পাল বলেন, বিষয়টি জানতে পেরে নথি দেখলাম। ব্যাঙ্কের ভুলে অন্যজনের একাউন্টে টাকা ঢুকে গেছে। নেমসেক অর্থাৎ একই নাম হওয়ার জন্য ঘটেছে। আমি সেই ব্যক্তির কাছে চিঠি পাঠাচ্ছি। যে আইনী ব্যবস্থা নেওয়ার নেব।  

নেমসেক। একই নাম দুই ব্যক্তির। নাম আজাদ শেখ। একজন ইন্দিরা আবাস যোজনার বাড়ি প্রাপক। ভুল করে একাউন্টে টাকা ঢুকতেই অন্যজন সেই টাকা তুলে নিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের মুরারই ১ নম্বর ব্লকের ভাদীশ্বরে। জানা গিয়েছে ২০১৬ সালে ইন্দিরা আবাস যোজনায় বাড়ি পান আজাদ শেখ তাঁর পিতা মৃত সাদের শেখ। কিন্তু সেই বাড়ির প্রথম কিস্তির ৩৫ হাজার টাকা তুলে নেন একই গ্রামের আজাদ শেখ ও তার স্ত্রী রেজিনা বিবি। বিষয়টি জানতে পেরে প্রকৃত প্রাপক আজাদ শেখ মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে জেলা প্রশাসনের সর্বত্র লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পাওয়ার পর তৎকালীন বিডিও টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে অভিযুক্তের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন। কিন্তু রেজিনা বিবি ও তার স্বামী আজাদ শেখ সেই চিঠির গুরুত্ব দেননি। ফলে ফের প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন প্রাপক আজাদ। তিনি বলেন, “আমি দিনমজুর। তিন ছেলেমেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে খুব কষ্টে কুঁড়ে ঘরে বাস করছি। একটু বৃষ্টি হলেই ফুটো চাল দিয়ে ঘরের ভিতরে জল পড়ে। আমিই আসল উপভোক্তা। আমার নামেই বাড়ি দেওয়া হয়। আমার নামেই নাম এমন এক ব্যক্তি সেই টাকা তুলে নিয়েছে। প্রশাসন চিঠি করলেও ফেরত দিচ্ছে না।”

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only