বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯

১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করছে পার্লে

দেশজুড়ে চলা আর্থিক সংকটের আঁচ এসে পড়েছে বৃহত্তর বিস্কুট নির্মাতা সংস্থা পার্লের উপর। সংস্থার তরফে আগেই জানানো হয়েছিল– দেশের আর্থিক মন্দার কারণে ক্রেতারা মাত্র ৫টকা মূল্যের একটি বিস্কুট প্যাকেট কিনতেও দু’বার করে ভাবছেন। তাঁদের পণ্যের বিক্রি অনেক কমে গিয়েছে। সেই উদ্বেগপ্রকাশের ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই আরও বড় উদ্বেগের কথা শোনাল সংস্থাটি। অন্ততঃ ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করতে চলেছে পার্লে প্রডাক্ট প্রাইভেট লিমিটেড। শুধু তাই নয়– ৯০ বছরের পুরনো এই সংস্থা বিস্কুট উৎপাদনও এক ধাক্কায় অনেকটাই কমাতে চলেছে। সংস্থার দু’টি জনপ্রিয় ব্রান্ড ‘পার্লে জি’ ও ‘পার্লে মারি’ উৎপাদনেও কাটছাঁট করতে চলেছে তারা। পার্লের ক্যাটাগরি প্রধান মায়াঙ্ক শাহ বুধবার এমনটাই জানিয়েছেন। একইসঙ্গে জানিয়েছেন– ব্যবসায় এই মন্দার জন্য দায়ী জিএসটিও। জিএসটির কারণেই পণ্যের দাম বাড়াতে বাধ্য হয়েছেন তাঁরা। আর তার প্রভাব পড়েছে বিক্রিতে। তিনি জানান– দেশের আর্থিক গতি ক্রমশ শ্লথ হয়ে পড়ছে। তারউপর জিএসটি লাগু হওয়ার ধাক্কা। একইসঙ্গে গ্রাম-গঞ্জে বিস্কুটের চাহিদা কমে যাওয়ায় তাঁদের সামনে এখনই ৮ থেকে ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করা ছাড়া আর কোনও রাস্তা নেই। মায়াঙ্ক বলেন– চাইলে এই পরিস্থিতিতে একমাত্র কেন্দ্রীয় সরকারই তাঁদের বাঁচাতে পারে। এজন্য জরুরী পদক্ষেপ করা প্রয়োজন। তাহলে হয়তো কর্মী ছাঁটাই আটকানো যেতে পারে। জিএসটি’র বোঝা এতটাই চেপে বসেছে যে বিস্কুটের মূল্যবৃদ্ধি আটকে রাখা যাচ্ছে না। ফলে প্যাকেটে আগের থেকে এখন কম বিস্কুট দিতে হচ্ছে। ক্রেতাদের মধ্যে বিস্কুট কেনার আগ্রহ কমছে। শুধু পার্লে নয়– আর এক বৃহত্তর বিস্কুট উৎপাদন সংস্থা ব্রিটানিয়াও দেশের আর্থিক মন্দার ধাক্কায় বেশ চাপে রয়েছে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only