সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

ফারুক আবদুল্লাহকে সরকার ভয় পাচ্ছে কেন? প্রশ্ন ওয়াইসির

হায়দরাবাদ, ১৬ সেপ্টেম্বর: জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ-র বিরুদ্ধে পাবলিক সেফটি অ্যাক্ট প্রয়োগ করেছে কেন্দ্র। যার জেরে ক্ষুব্ধ সাংসদ তথা এআইএমআইএম নেতা আসাউদ্দিন ওয়াইসি। ক্ষুব্ধ সাংসদের প্রশ্ন– ৮০ বছরের ফারুক আবদুল্লাহ-র থেকে সরকারের ভয় কিসের?
৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের পর পরই জম্মু-কাশ্মীরের বহু নেতাকে আটক ও গ্রেফতার করে রাজ্য প্রশাসন। ফারুক আবদুল্লাহ, ওমর আবদুল্লাহ এবং মেহবুবা মুফতিকে ‘গৃহবন্দি’ করে রাখার অভিযোগ ওঠে। গত ৬ আগস্ট ন্যাশনাল কংগ্রেস পার্টি নেত্রী সুপ্রিয়া সুলে সংসদে বিষয়টি উত্থাপন করেন। কেন সংসদে ফারুক আবদুল্লাহ নেই, তা নিয়ে সরকারের কাছে প্রশ্ন তোলেন। ফারুককে গৃহবন্দি রাখার অভিযোগ তোলেন তিনি। যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে দাবি করেছিলেন, ফারুক আবদুল্লাহকে গৃহবন্দি করা হয়নি। তিনি অসুস্থ অবস্থায় বাড়িতে রয়েছেন। এবার সেই একই প্রশ্ন তুলল সুপ্রিম কোর্টও। কেন্দ্রের কাছে আদালতের প্রশ্ন– কেন ফারুক আবদুল্লাহকে আটক করে রাখা হয়েছে। এদিকে দেশের শীর্ষ আদালত যখন এই প্রশ্ন তুলছে, তখনই ফারুক আবদুল্লাহর বিরুদ্ধে পাবলিক সেফটি অ্যাক্ট প্রয়োগ করে কেন্দ্রীয় সরকার।
কী এই পাবলিক সেফটি অ্যাক্ট? এই আইনের সংস্থান অনুযায়ী, বিচার ছাড়াই দু’বছর পর্যন্ত কোনও ব্যক্তিকে আটক করে রাখতে পারে সরকার। এই প্রথম কোনও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে পাবলিক সেফটি অ্যাক্ট প্রয়োগ করল কেন্দ্র। এখানেই প্রশ্ন আসাউদ্দিন ওয়াইসির। তিনি বলেন, ‘৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের কিছুদিন আগেও ফারুক আবদুল্লাহ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করেছিলেন। এতে বিপদটা কোথায়? ৮০ বছরের ফারুক আবদুল্লাহ-র থেকে সরকারের ভয় কিসের’?
এর পাশাপাশি ওয়াসির অভিযোগ– সরকার জম্মু কাশ্মীর ইস্যুতে মিথ্যে কথা বলছেন। ‘জম্মু-কাশ্মীরের যিনি প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী– তাঁকে সেই রাজ্যে যেতেই কেন অনুমতি নিতে হচ্ছে? এতেই বোঝা যাচ্ছে– জম্মু-কাশ্মীরের অবস্থা মোটেই ঠিক নেই। সরকার বলছে সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক। তাহলে রাজনীতিবিদদের সেখানে কেন যেতে বাঁধা দেওয়া হচ্ছে?’

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only