বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

‘হিন্দি’ নিয়ে অমিত শাহের ডিগবাজি

অমিত শাহের ডিগবাজি। কয়েকদিন আগেই তিনি বলেছিলেন, হিন্দিকে দেশের একমাত্র ভাষা বানাতে হবে, বিশ্ব যাতে ভারতের ভাষা বলতে শুধু হিন্দিকেই বোঝে। তাঁর সেই মন্তব্যের পর ঝড় উঠেছে দেশে। আঞ্চলিক ভাষাগুলোর উপর এই সাম্রাজ্যবাদী মানসিকতার বিরুদ্ধে নিন্দায় সরব হন দেশের সাধারণ নাগরিক থেকে বিশিষ্টরা। কিন্তু বুধবার নিজের কথাকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি জানালেন, আমার বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছে। মাতূভাষা মানে সেটা যে হিন্দি হবে তার কোনও মানে নেই। এটা কোনও রাজ্যের একটি নির্দিষ্ট ভাষা, যেমন আমার গুজরাতি। কিন্তু দেশে এমন একটি ভাষা থাকবে, যদি কেউ অন্য একটি ভাষা শিখতে চায়, সেটা যেন হিন্দি হয়।

তিনি বলেন, আমি মোটেও হিন্দিকে চাপিয়ে দেওয়ার কথা বলিনি। আমি এটিকে দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে অগ্রাধিকার দেওয়ার কথা বলেছিলাম।তিনি আরও বলেন, আঞ্চলিক ভাষাগুলোকে আরও শক্তিশালী করবার জন্য আমি ক্রমাগত চেষ্টা চালাচ্ছি।  

আমি নিজেও অহিন্দি-ভাষী রাজ্য থেকে এসেছি। আমি গুজরাত থেকে এসেছি, যেখানে গুজরাতি হচ্ছে মূল ভাষা, হিন্দি নয়। আমার কথা ভালো করে মনোযোগ সহকারে শুনে তারপর মন্তব্য করতে হবে। এটা নিয়ে কেউ যদি রাজনীতি করতে চান, তবে সেটা আলাদা কথা।

হিন্দি প্রাত্যহিক সংবাদপত্র ‘হিন্দুস্তান’-এর একটি অনুষ্ঠানে রাঁচিতে এ কথা বলেন অমিত শাহ।
শাহ আরও বলেন, একটি শিশুর মানসিক বূদ্ধি তখনই সম্ভব, যখন সে মায়ের ভাষায় শিক্ষালাভ করে। সেটা শুধু হিন্দি নয়, সেটা সেই রাজ্যের একটি নির্দিষ্ট ভাষা, যেমন আমার রাজ্যে গুজরাতি। কিন্তু দেশে মন একটি ভাষা থাকা উচিত, যেটা দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে কেউ শিখবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only