রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

মিশর: থামল না সিসি-র বিরুদ্ধে ওঠা গর্জন

দ্বিতীয় দিনেও প্রেসিডেন্ট আল সিসি-র দুর্গ ভাঙার শব্দ শোনা গেল মিশরীয়দের কণ্ঠে। অন্যান্য শহরের মতো বন্দর শহর সুয়েজেও। সেখানে সংঘর্ষে জারি বিক্ষোভকারী ও নিরাপত্তারক্ষীদের মধ্যে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার এক মিশরীয় ব্যবসায়ীর ডাকে  তাহরির েস্কায়ার থেকে সূচনা হয়েছে সিসি সরকার বিরোধী আন্দোলন। ২০১১ সালে হোসনি মুবারককে ক্ষমতাচ্যুত করে এই স্থান থেকে মিশর বিপ্লবের সূচনা হয়। 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলির রিপোর্ট অনুযায়ী– বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করা হয়। তবু বিক্ষোভ থামেনি। প্রেসিডেন্ট ফাতাহ আল-সিসির পদত্যাগের দাবি তুলে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। শুক্রবার ৭৪ জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। 

এখন মিশরের বহু শহরের অলি গলি-তে শোনা যাচ্ছে ‘সিসি পদত্যাগ কর ধ্বনি’। হাজার হাজার মানুষ এখন এই বিক্ষোভে সামিল। সিসি-সরকারের বিরুদ্ধে ভিন্নমত পোষণকারী বহু মানুষকে ইতিমধ্যে আটক বা গ্রেফতার করা হয়েছে। 
এক বিক্ষোভকারী জানিয়েছেন– সুয়েজ শহরের একটি অঞ্চল থেকে প্রায় ২০০ জন বিক্ষোভকারী সিসি বিরুদ্ধে চলা আন্দোলনে সামিল হয়েছিলেন। মাঝপথে তাদের রাস্তা আটকায় সামরিক যানে চড়া নিরাপত্তা কর্মীরা। বিক্ষোভকারীদের সামনে এগিয়ে আসতে দেখে তারা টিয়ার গ্যাস ছোড়ে। একই সঙ্গে রাবার বুলেট নিক্ষেপ করা হয়। তাতে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারী আহত হন। 

ওই অঞ্চলের আর এক বাসিন্দা জানিয়েছে, টিয়ার গ্যাসের ঝাঁঝালো ধোঁয়ার তার বাড়িতেও ঢুকে পড়ে ছিল। গোটা এলাকা রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল এদিন। তিনি বলেন, ঘর ভর্তি  ঝাঁঝালো গ্যাসে আমার নাক মুখ জ্বালা করতে শুরু করে– বাড়ির বারান্দা থেকে গন্ধ আসতে থাকে। আমি দেখি এক যুবক দৌড়ে আমাদের বাড়ির সামনের রাস্তার একটি গলিতে লুকিয়ে পড়ে। গাজি ও মাহাল্লাতে বিক্ষোভের আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। অন্যদিকে– তাহরির স্কোয়ারকে কঠিন নিরাপত্তা বলায়ে মুড়ে ফেলা হয়েছে। 

এদিকে মানবাধিকার সংস্থা বিক্ষোভকারীদের মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। তারা বলেছে সরকারের দুর্নীতির বিরুদ্ধে মুখ েখালার জন্য নাগরিকদের পূর্ণ স্বাধীনতা রয়েছে। ফলে গ্রেফতার হওয়া বিক্ষোভকারীদের অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে। 
এদিকে বিশ্লেষকদের মধ্যে, সিসির বিরুদ্ধে ওঠা একটি আগুনের স্ফুলিঙ্গ সাড়া মিশরকে একত্রিত করেছে। মতাদর্শের মধ্যে পার্থক্য থাকলেও মানুষ বুঝতে পেরেছে সিসি সরকারের কারসাজি। তাই, অস্বস্তিকর পরিস্থিতি থেকে বাঁচতে এখন নিরাপদ আশ্রয় হাতড়াচ্ছেন প্রেসিডেন্ট সিসি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only