বুধবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

১৭৪ বছর পর অবিকৃত ফ্রাঙ্কলিনের জোড়া জাহাজ


১৮৪৫ সালে ইংল্যান্ড থেকে পৃথিবীর উত্তর-পশ্চিম কোণ বরাবর নতুন পথ খুঁজতে সমুদ্রাভিযানে বের হয়ে ছিলেন ব্রিটিশ নাবিক জন ফ্রাঙ্কলিন। তিনি এরিবাস ও টেরর নামে ২টি জাহাজ নিয়ে রওনা দিয়েছিলেন। কিন্তু হঠাৎ রহস্যজনকভাবে ১২৯ যাত্রী ও ২টি জাহাজসহ নিখোঁজ হন ফ্রাঙ্কলিন। এর ১৭৪ বছর পর জট খুলেছে।
২০১৪ ও ২০১৬ সালে ওই ২টি জাহাজের খোঁজ পাওয়া যায়। দূরনিয়ন্ত্রিত যন্ত্র দিয়ে সেগুলোর ভেতরের পরিস্থিতি দেখেন বিজ্ঞানীরা। তারা দেখতে পান, জাহাজের ভেতরের জিনিসপত্র ভালো অবস্থায় রয়েছে। আর তাই বিজ্ঞানীদের ধারণা, পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালালে ওই ২ জাহাজের যাত্রীদের শেষদিনগুলোর পরিস্থিতি এবং সে সময় অভিযানে ওই ২ জাহাজ কী কী পর্যবেক্ষণ করেছিল, তা জানা সম্ভব হবে।
জন ফ্রাঙ্কলিন ব্রিটিশ রয়্যাল নেভির কর্মকর্তা ছিলেন। বাষ্পচালিত ইঞ্জিনের ওই ২ জাহাজে ৩ বছরের খাবার মজুদ ছিল। ইতিহাস থেকে জানা যায়, ইউরোপ থেকে ১৮৪৫ সাল পর্যন্ত যতগুলো সমুদ্রাভিযান হয়েছিলো, তার মধ্যে এটাই ছিল সবচেয়ে সুপরিকল্পিত। স্কটল্যান্ডের অর্কনেদ্বীপ ও গ্রিনল্যান্ডে নোঙর ফেলার পর ওই ২ জাহাজ আর্কটিক কানাডার উদ্দেশে রওনা দেয়। তাদের পরিকল্পনা ছিলো আর্কটিক কানাডার বিভিন্ন প্রণালির গোলকধাঁধা ভেদ করে প্রশান্ত মহাসাগরে পৌঁছানো।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only