বুধবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

উন্নাওয়ের নির্যাতিতাকে রাজধানীতে থাকার অনুমতি দিল্লি হাইকোর্টের

ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। গাড়ি দুর্ঘটনায় এখন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। তা সত্ত্বেও তাঁকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এই অভিযোগ জানিয়ে উত্তরপ্রদেশে নয়– বরং নির্যাতিতাকে দিল্লিতে রাখতে চেয়েছিলেন তাঁর মা। সেই আবেদনে সাড়া দিল দিল্লি হাইকোর্ট। নির্যাতিতাকে এইমসের ট্রমা সেন্টারে থাকার নির্দেশ দিল আদালত।
২০১৭-র জুলাইয়ে বছর সতেরোর কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের হয় বিজেপি বিধায়ক  কুলদীপ সেঙ্গারের বিরুদ্ধে। তদন্তে নেমে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারপর থেকেই তিনি জেলে। নেতা জেলে থাকলে কী হবে! নির্যাতিতা ও তাঁর পরিবারকে প্রাণে মারার হুমকি দিচ্ছেন পদ্ম বিধায়কের সাঙ্গপাঙ্গরা। এমনই অভিযোগ উন্নাওয়ের নির্যাতিতার। এরই মধ্যে ২৮ জুলাই গাড়ি দুর্ঘটনায় জখম হন নির্যাতিতা। মৃতু্য হয় তাঁর ২ আত্মীয়ের। নির্যাতিতা প্রাণে বেঁচে গেলেও বর্তমানে তিনি দিল্লির এইমসে চিকিৎসাধীন। গাড়ি দুর্ঘটনার পরই তদন্তভার হাতে নেয় সিবিআই।  তরুণী গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় হাসপাতালেই বসে আদালত। সিবিআই সেখানে জানায়– নির্যাতিতা ‘ক্যাটেগরি এ’ পর্যায়ের হুমকি পাচ্ছেন। তদন্তকারীরা আবেদন জানান নির্যাতিতা ও তাঁর পরিবারের নিরাপত্তার।
ওই একই দাবি জানিয়েছিলেন নির্যাতিতার মা। সেই আবেদনে সাড়া দেয় দিল্লি হাইকোর্ট।  নির্যাতিতাকে এইমসের ট্রমা সেন্টারে থাকার নির্দেশ দেন বিচারপতি। 



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only