বুধবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

চিন্ময়ানন্দর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনা আইনি ছাত্রীকে গ্রেফতার

প্রাক্তন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা স্বামী চিন্ময়ানন্দর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছিলেন শাহজাহানপুরের এক আইনি ছাত্রী। সেই ঘটনায় আদালত চিন্ময়ানন্দের জামিনের আর্জি খারিজ করে দিয়েছে। পুলিশ তাঁকে গ্রেফতারও করে। কিন্তু, জেলের পরিবর্তে চিন্ময়ানন্দ ‘আশ্রয়’ নিয়েছেন হাসপাতালে। তাঁর হার্টে ব্লক রয়েছে। উচ্চ রক্তচাপ আর হাইপার টেনশনেও নাকি ভুগছেন। সেজন্য তাঁকে এখন হাসপাতালে থাকতে হচ্ছে। অন্যদিকে, চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনা নির্যাতিতা তরুণীকে বুধবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাঁকে জেলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। নির্যাতিতার পরিবারের অভিযোগ, তাঁদের মেয়েকে এদিন সকালে পুলিশ জোর করে তুলে নিয়ে গিয়েছে। এমনকী জুতো পরার সময় পর্যন্ত দেওয়া হয়নি। খালি পায়েই যেতে হয়েছে।

 গ্রেফতারের আগে রুটিন চেক্আপের জন্যই তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পুলিশ যে নির্যাতিতা তরুণীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তৎপর তা আগেই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। পুলিশ ধারণাই করে নিয়েছে, চিন্ময়ানন্দকে টাকার জন্য ব্ল্যাকমেল করতেন নির্যাতিতা। এবার তদন্তকারী সংস্থা ‘সিট’ও একই ধরনের ধারণা করতে শুরু করেছে। বিশেষ তদন্তকারী টিম (সিট)-এর প্রধান নবীন অরোরা সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের কাছে যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে চিন্ময়ানন্দের থেকে ব্ল্যাকমেল করে ৫ কোটি টাকা দাবি করা হয়েছিল। যাঁরা গ্রেফতার হয়েছেন তাঁরা স্বীকার করে নিয়েছেন তরুণীর কথামতোই তাঁরা চিন্ময়ানন্দকে মেসেজ করেছিলেন। কিন্তু টাকা না পেয়ে তাঁরা হতাশ ও ভীত হয়ে পড়েন। অন্যদিকে– স্বামী চিন্ময়ানন্দকে শুক্রবারই গ্রেফতার করে পুলিশ। কিন্তু, তিনি এখন হাসপাতালে ভর্তি। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only