বৃহস্পতিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

হার্ট অ্যাটাকে ইন্তেকাল মুরসি-পুত্রের

মাত্র ২৪ বছর বয়সেই হার্ট অ্যাটাকে ইন্তেকাল করলেন মিশরের প্রাক্তন ও প্রয়াত প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ মুরসি-র ছোটছেলে আবদুল্লাহ। গত ১৭ জুন কাঠগড়ায় দাঁড়িয়েই হার্ট অ্যাটাকে ইন্তেকাল হয় তাঁর আব্বা মুরসির। তার আড়াই মাস পর সেই হার্ট অ্যাটাকেই চলে গেলেন ছোটছেলেও। বুধবার রাতে রাজধানী কায়রোর পাশে গিজা শহরের ওয়েসিস নামে এক হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানেই মওত হয় যুবক আবদুল্লাহর। মুরসি পরিবার সূত্রে মৃতু্য সংবাদ নিশ্চিত করা হলেও মিশর সরকারের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।
নিহতের ভাই আহমেদ মুরসি জানান– এক বন্ধুকে নিয়ে কায়রো শহরে গাড়ি চালিয়ে যাওয়ায় সময় বুকে ব্যথা অনুভব করলে দ্রুত তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে মাত্র কয়েকঘণ্টা চিকিৎসার পরেই ভোররাতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। উল্লেখ্য– ২০১৩ সালে ৩১ জুলাই সেনা অভু্যত্থানে প্রেসিডেন্ট মুরসিকে উৎখাত করে জেলে পুরে দেওয়ার পর থেকে পারিবারিক মুখপাত্র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন আবদুল্লাহ। টিভি নিউজ সূত্রে খবর– যুবক আবদুল্লাহর একটা বড় টিউমার ছিল। সে জন্য ধারাবাহিক চিকিৎসাও করাতেন। তার যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরেই হার্ট অ্যাটাক হয়ে মৃতু্যর কোলে ঢলে পড়লেন আবদুল্লাহ। 
তবে তাঁর ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর– আব্বার মৃতু্যর পর মানসিকভাবে ভীষণ আঘাত পান ছোটছেলে আবদুল্লাহ। সেই আঘাত তাঁকে এমনভাবে কুরে কুরে খাচ্ছিল যে– মাত্র আড়াই মাস পর ইন্তেকাল হল। না হলে ২৪ বছরের তরতাজা যুবকের হার্ট অ্যাটাকে এভাবে মৃতু্য হতে পারে না। তাঁরা এও বলেন– টিউমার থাকলেও সেটা খুব একটা পীড়াদায়ক ছিল না। এ ছাড়া তাঁর আর কোনও শারীরিক সমস্যা বা রোগ ছিল না। উল্লেখ্য– গত ৬ বছরে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগে বেশ কয়েকবার গ্রেফতার করে জেলে পাঠানো হয় আবদুল্লাহকে। এমনকী তাঁর বিরুদ্ধে মাদক সংক্রান্ত অভিযোগও এনেছিল স্বৈরশাসক জেনারেল আলসিসি। তবে কোনও অভিযোগই প্রমাণ করতে না পারায় প্রতিবারই আদালত তাঁকে মুক্তি দেয়। উল্লেখ্য– প্রেসিডেন্ট মুরসির ইন্তেকালের পর সাংবাদিক সম্মেলন করে মিশরের বর্তমান সামরিক জান্তা সরকারের শীর্ষকর্তাদের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন আবদুল্লাহ। প্রেসিডেন্ট আলসিসি থেকে শুরু করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীকে পর্যন্ত তাঁর আব্বার হত্যাকারী বলে গর্জে ওঠেন আবদুল্লাহ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only