বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

ইরানের মদদেই হামলা আরামকোতে, দাবি সৌদির

কয়েকদিন আগে সৌদি তেলসংস্থা আরামকোর ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইয়েমেনের প্রতিক্রিয়াশীল হুতি জঙ্গিরা। তবে এর পিছনে ইরানের প্রত্যক্ষ মদদ রয়েছে বলে দাবি সৌদি আরবের। এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই বলে জানিয়েছে সৌদি আরব। বুধবার এ নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের মুখপাত্র কর্নেল তুর্কি আল মালকি। তিনি বলেছেন, গত শনিবার সৌদি আরবের তেল স্থাপনায় যে হামলা হয়েছে তা চালানো হয়েছে উত্তর দিক থেকে। এতে যে ইরানের মদদ রয়েছে তা নিয়ে কোনো সন্দেহের অবকাশ নেই। তবু প্রকৃতপক্ষে কোন স্থান থেকে ওই হামলা চালানো হয়েছিল তা নিয়ে তদন্ত করছে সৌদি আরব। তিনি হামলায় ব্যবহৃত অস্ত্রের বিধ্বস্ত অংশগুলো প্রদর্শন করেন। 

ওদিকে এ হামলায় জড়িত থাকার কথা বার বার অস্বীকার করে আসছে ইরান। যদি তাদেরকে এ হামলার জন্য টার্গেট করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাহলে তার তাৎক্ষণিক জবাব দেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে ইরান। কর্নেল তুর্কি আল মালকির সাংবাদিক সম্মেলনের পর ইরানের রাষ্ট্রপতি হাসান রুহানির একজন উপদেষ্টা হিসামেদ্দিন আশেনা বলেছেন, সৌদি আরব প্রমাণ করেছে তারা কিছুই জানে না। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ওই সাংবাদিক সম্মেলন প্রমাণ করে যে, মিসাইল এবং ড্রোন কোথায় তৈরি এবং কোথা থেকে তা ছোড়া হয়েছে এ বিষয়ে কিছুই জানে না সৌদি আরব। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only