বুধবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

ছত্রিশগড়ে বিস্ফোরণে তেলের ট্যাঙ্কার উড়িয়ে দিল মাওবাদীরা, নিহত ৩



ফের মাওবাদীদের নাশকতার শিকার হল ছত্তিশগড়। মঙ্গলবার একটি তেলের ট্যাঙ্কারে মাওবাদীরা আইডি বিস্ফোরণ ঘটালে কমপক্ষে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ছত্তিশগড়ের কাঁকের জেলায় বস্তার রেঞ্জের পুলিশের আজি বিকোনন্দ সিনহা এ বিষয়ে বলেন, করাল ১০টা নাগাদ রোঘাট এলাকায় কোসরোন্ডা ও টুমাপাল গ্রামের মধ্যে রেললাইনের কাজ চলার সময় সেখানে ডিজেল ভর্তি ট্যাঙ্কারটি পৌঁছলে বিস্ফোরণ হয়।দাল্লিরাঝরা-রোঘাট রেললাইন প্রজেক্টের কাজে ব্যবহারের জন্য তেল ভর্তি ট্যাঙ্কারটি সশস্ত্র সীমা বলের টুমাপাল ক্যাম্প থেকে আসছিল। রাজধানী রায়পুর থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে পাটকালবেদা গ্রামে পৌঁছনো মাত্রই মাওবাদীরা শক্তিশালী আইডি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে সেটি উড়িয়ে দেয়। এর ফলে ওই ট্যাঙ্কারে থাকা তিনজন ব্যক্তির মৃত্যু হয়। পুলিশ নিহতদের দেহ শনাক্ত করেছে। পুলিশ জানিয়েছে, এই তিনজন হলেন ড্রাইভার রাকেশ তোডোপি (২৪), বাড়ি কোন্ডাগাঁও জেলায়। অপরজন ধুনেশ্বর সিং (২৪)-এর বাড়ি মধ্যপ্রদেশে। আর খালাসি কুমার সাদামের বাড়ি কাঁকের জেলার রোঘাটে।
উড়িয়ে দেওয়া তেল বর্তি ট্যাঙ্কারটি কে আর কনস্ট্রাকশন কোম্পানির। তারা রেললাইন তৈরি প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত। নাশতকতার খবর পেয়ে বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী সহ ঘটনাস্থলে গেছেন কাঁকের জেলার পুলিশ সুপার কে এল ধ্রুব। সেই সঙে।গ সশস্ত্র সীমা বলের টুমাপাল ও কোসরোন্ডা ক্যাম্পের বিশেষ দল দুষ্কৃতীদের খোঁজে জোর তল্লাশি শুরু করেছে।পুলিশের অভিযোগ, বস্তার এলাকার উন্নয়নের কাজে বারে বারেই মাওবাদীরা নাশকতা চালিয়ে কাজ ব্যাহত করে চলেছে।
উল্লেখ্য, উত্তর বস্তার অঞ্চলে ২৩৫ কিমি দীর্ধ দাল্লিরাঝরা-রোঘাট-জগদলপুর রেল প্রকল্পে ব্রডগেজ লাইনের কাজ চলছে। প্রথম পর্যায়ে দাল্লিরাঝরা ও রোঘাটের মধ্যে ৯৫ কিমি লাইন বসানোর কাজ শেষ হয়েছে। ইতিমধ্যে দাল্লিরাঝরা স্টেশন থেকে ৪২ কিমি দূরে কেভটি গ্রাম পর্যন্ত আপাতত যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only