সোমবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৯

এনআরসি হবে না, ভোলবদল কর্নাটকের বিজেপি সরকারের


পুবের কলম, বেঙ্গালুরু: প্রথমে জোরগলায় সায় দিলেও পরে বেঁকে বসল কর্ণাটকের বিজেপি সরকার। সোমবার তারা সাফ জানিয়ে দিল, রাজ্যে তারা অসমের মতো এনআরসি চায় না। দক্ষিণের এই রাজ্যটি জানিয়ে দিল, যারা মেয়াদ শেষ হওয়া ভিসা নিয়ে এখানে রয়েছে তাদের জন্য আলাদা তালিকা তৈরি করা হবে।
বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব বার বার এনআরসি হুংকার দিলেও নিজেদের রাজ্যেই তারা এই ইস্যুতে হালে পানি পাচ্ছে না। সে কারণেই কর্ণাটকে এনআরসি করব বলেও ভোল পাল্টাতে হল বিজেপিকে।
কর্ণাটকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্মানি আগে জানিয়েছিলেন, অসমের মতো সে রাজ্যেও এনআরসি হবে। সে অবস্থান থেকে সোমবার ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গেল বিজেপি শাসিত কর্ণাটক সরকার। সে রাজ্যের ফরেনার্স রিজিওনাল রেজিস্ট্রেশন অফিসের আধিকারিক লভূ রাম জানান, বর্তমানে কর্নাটকে অন্তত ৮০০ জন বিদেশি নাগরিক বেআইনিভাবে রয়েছেন। কেবল এনআরসি হুংকার নয়, বিজেপি জানিয়ে দিয়েছিল, কর্ণাটকের নেলামাংগালায় খোলা হবে রাজ্যের প্রথম ডিটেনশন ক্যাম্প।
সম্প্রতি একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে ব্যক্তিগত সাক্ষাতকারে অমিত শাহ বলেছেন দেশজুড়ে এনআরসি হবে। বাংলায় এই এনআরসিকে তার দল যে রাজনৈতিক ইস্যু করতে চাইছে, তাও বুঝিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। বাংলায় এই ইস্যুটি আসলে বিজেপিকে ব্যাকফুটে ফেলবে বলে মনে করছেন অনেকে । যদিও নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে অমিত শাহ বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, কোন কোন ধর্মের মানুষদের দেশ থেকে তাড়ানো হবে না। তার মধ্যে নাম ছিল না মুসলিমদের।
সম্প্রতি কলকাতা ঘুরে যাওয়া ম্যাগসাইসাই জয়ী সাংবাদিক রবীশ কুমার বলেন, অমিত শাহ কি ১৫ কোটি মুসলিমের স্বরাষ্ট্রন্ত্রী নন? অমিত শাহ যখন এমন কথা বললেন তখন কেনই বা বাঙালি প্রতিবাদ করল না? বাঙালির সেই জাগ্রত বিবেকে এমন দুর্ভিক্ষ এল কেন? আসলে অসমে এনআরসি-র চুড়ান্ত তালিকা প্রকাশের পর সকলের চোখ খুলে গিয়েছে।
বিজেপির শুকনো আশ্বাসে ভরসা করতে পারছেন না কেউ। অসমে বহু বাঙালি হিন্দুকে বিদেশি বলে ঘোষণা করা হয়েছে। ডিটেনশন ক্যাম্পে দিন কাটছে অনেকের। দেশজুড়ে একটা অস্থিরতা তৈরি হয়েছে এনআরসি নিয়ে। অমিত শাহ যতই বিভেদের তাস খেলুন, ধর্ম-বর্ণ নির্বেশেষে আম আদমির মনে আজকে এনআরসি একটি আতঙ্কের নাম। জনগণের মন বুঝেই কর্ণাটকের বিজেপি সরকার তার ভোল বদলেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only