বুধবার, ৩০ অক্টোবর, ২০১৯

'লাশ নয়, ঘরের মানুষকে জীবিত ফিরিয়ে দিন'



পুবের কলম, বীরভূম: বাহারনগরের চার পরিবারের আবেদন, 'লাশ নয়, ঘরের মানুষকে জীবিত ফিরিয়ে দিন।'  বীরভূমের মোরগ্রামের কাছেই বাহার নগর  দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলগ্রাম জেলার কাতরাসু গ্রাম থেকে বীরভূম সীমান্তবর্তী বাহার নগর গ্রামের দূরত্ব অনেক!  অকুতস্থল থেকে ২০ কিমি দূরে শিরনপুরা সেখানেই কাজ করত বাহার নগরের আরও চারজন বাঙালি  তাদের কি হল এই চিন্তায় ঘুম নেই পরিবারের লোকজনদের!  এই গ্রামের আরও চারটি পরিবার তাই আতঙ্কে প্রহর গুনছে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে, দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাদের আবেদন, আমাদের কারো বাবা, কারো ভাই, কারো সোহরকে আমাদের কাছে ফিরিয়ে দিন!' লাশ নয়, জীবিত ফিরিয়ে দিন!'

বুধবার সকাল সাতটা  থেকে সাড়ে সাতটার মধ্যে এই পরিবারের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হয় কাশ্মীরের একটি পোস্টপেড নাম্বার থেকে সেখানে বেশি কিছু কথা হয়নি পরিবারের সঙ্গে বাসিরুল সেখের মা নুরন্নেহার বিবি বলেন, খুব কম কথা হয়েছে কেবল বল্লে , “ মা আমি কোন রকমে বেঁচে আছি বাঁচবার তো কথায় নয় যারা এসেছিল সব মারা গেছে
বাহার নগরের বাবু সরকার কাশ্মীরেই তাঁর স্ত্রী সোনালী বিবি চার মেয়ে নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় দিন কাটাচ্ছেনটিভিতে কাশ্মীরের এই হত্যার খবর শোনার পর থেকে  বাড়িতে রান্নাবাড়া বন্ধ চার মেয়ের মধ্যে বড় মেয়ে শেফালি বিবি বলেন, আমাদের সঙ্গে আব্বা বেশি কিছু কথা বলেননি শুধু বলেছেন, আব্বা ভালো আছেন শীঘ্র বাড়ি ফিরবেন  অন্যদিকে, বাক্কার সেখের স্ত্রী নুরবানু বিবি এক মেয়ে, দুই ছেলে নিয়ে দুঃশ্চিন্তার প্রহর কাটাচ্ছে  তাঁর শুধু একটাই কাতর আকুতি, আমার স্বামীকে ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করুন!

কাশ্মীরের কুলগাঁও জেলায়  সানোয়ার সেখ বাড়িতে  আপেলের বাগানে ২০ বছর ধরে কাজ করছে নুরসেলাম সেখ বুধবার  সানোয়ার সেখের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ২০ কিমি দূরে কুলগ্রাম জেলার কাতরাসুতে এই ঘটনা ঘটেছে ওদের কথা বলতে পারবো না নুরসেলাম আমার দোস্ত, ভাই ২০ বছর ধরে এখানে কাজ করছে বাড়ি যায় আবার আসে প্রথমে সানোয়ার ভাই বলেন, বেলা ১টা নাগাদ নুরসেলামের সাথে কথা বলিয়ে দেবেন ফের কথার মাঝেই বলেন, ওকে জম্মু যাওয়ার বাসে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে দুতিন দিনের মধ্যে বাড়ি ফিরে যাবে  পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল এব্যাপারে তাঁরা নিশ্চিত নন

বাহার নগরের বাসিন্দা লাড্ডু সেখ বলেন, কোন দিকে কোন উপায় পাচ্ছি না, তখন আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন বাংলা সংস্কৃতি মঞ্চের সভাপতি সামিরুল সেখ  সামিরুল সেখ বলেন, আমরা কাশ্মীরের প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে যেটুকু জেনেছি ওই চারজন শ্রমিকদের নিরাপত্তার কারণে পুলিশ তাদের নিরাপদ স্থানে রেখেছে আমরা যোগাযোগ রাখছি আরও কোন বাঙালি শ্রমিক ওখানে আছে কিনা সেটা দেখছি তবে আমরা ওই পরিবারের সদস্যদের নিরাপদভাবে বাংলায় ফিরিয়ে আনার জন্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only