শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯

নানুরে গৃহবধুকে বিবস্ত্র করে বেধড়ক মার গ্রামবাসীদের

পুবের কলম, বোলপুর: এক মহিলাকে বিবস্ত্র করে গ্রাম ঘোরানোর অভিযোগ উত্তেজিত জনতার বিরুদ্ধে। ঘটনাস্থল থেকে ওই মহিলাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনার জেরে এলাকায় ব্যপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমে নানুর থানার খুজুটিপাড়া এলাকায়।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছেটগরি লোহার নামে ওই মহিলা দুই সন্তানের মা। বছর তেরো আগে মোহন লোহার নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। ২০১১ সালে দুই পুত্র সন্তানকে ফেলে রেখে পর পুরুষের সঙ্গে পালিয়ে যান। কিন্তু এক বছর পর ফিরে এসে ফের সংসার শুরু করেন।

কিন্তু স্বভাব পালটাননি তিনি বেশ কিছুদিন আগে পিন্টু নাথ নামে আরও এক বিবাহিত যুবকের সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন ওই বধূ। কিন্তু কিছু দিন পর সেই সম্পর্কে ফাটল ধরে।  
মনোমালিন্যের জেরে বৃহস্পতিবার আত্মহত্যা করেন পিন্টু। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা ওই মহিলার বাড়িতে চড়াও হয় এবং ঘর থেকে তাঁকে টেনে হিঁচড়ে বের করেই মারধর শুরু করে গ্রামবাসীরা। এমনকি তাঁকে বিবস্ত্র করে গোটা এলাকা ঘোরানোও হয়। ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় যথেষ্ট পরিমাণে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। ওই মহিলাকে নিকটবর্তী নানুর ফাঁড়ি থেকে   নানুর থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। অন্যদিকে মৃত যুবকের পরিবারের তরফ থেকেও ওই মহিলার বিরুদ্ধে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

মৃত ওই যুবকের স্ত্রীর ঝুম্পা নাথ জানান, আমার স্বামীর সঙ্গে ওই মহিলার বিবাহবর্হিভূত সম্পর্ক ছিল। সেটা আমি হঠাৎ জানতে পারি। ওই মহিলা আমার সোনার গহনা,টাকা,পয়সা যা ছিল সব নিয়ে নিয়েছে। তারপরেও আমার স্বামীকে চাপ দেয় আরও সোনার গয়নাও টাকা,পয়সা দেওয়ার জন্য। কিন্তু আমার স্বামী সেটা দিতে অস্বীকার করায় অন্য ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ার কথা বলে ওই মহিলা। সেই কারণেই আমার স্বামী বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছে। এই সমস্ত ঘটনা আমার স্বামী মরার আগে সব আমাকে বলেছে।'

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only